JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.

‘গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা তিস্তা সেতু’র উদ্বোধন

আসাদ হোসেন রিফাত,লালমনিরহাট প্রতিনিধিঃ দেশের উত্তরাঞ্চলের দ্বিতীয় বৃহত্তম তিস্তা সড়ক সেতু ‘গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা তিস্তা সেতু’র উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। রোববার (১৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্স’র মাধ্যমে স্থানীয় সরকার বিভাগ এলজিইডি’র বাস্তবায়িত এ সেতুর উদ্বোধন করেন তিনি।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, এলজিইডি প্রতিমন্ত্রী মশিউর রহমান রাঙ্গা, প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোতাহার হোসেন এমপি, সমাজকল্যান প্রতিমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহম্মেদ, লালমনিরহাট পুলিশ সুপার এসএম রশিদুল হক, রংপুর পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান, রংপুর জেলা প্রশাসক এনামুল হাবিব, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যার এ্যাডভোকেট. মতিয়ার রহমান লালমনিরহাট জেলা প্রশাসক শফিউল আরিফ, এ্যাডভোকেট সফুরা বেগম রুমী এমপি,কালীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার রবিউল হাসান ও কালীগঞ্জ উপজেলা চেয়ারম্যার মাহবুবুজ্জামান আহমেদ, হাতিবান্ধা উপজেলা চেয়ারম্যার লিয়াকত হোসেন বাচ্চু ।

এ সেতু বাস্তবায়নের ফলে লালমনিরহাট জেলার চার উপজেলাসহ বৃহত্তর রংপুরের কোটি মানুষের দীর্ঘদিনের স্বপ্ন কাকিনা-মহিপুর দ্বিতীয় তিস্তা সড়ক সেতু। এতে করে রংপুর ও লালমনিরহাটের মানুষের মধ্যে যোগাযোগ ব্যবস্থা আরো সহজ হলো।

তিস্তা নদীর উপর নির্মিত দ্বিতীয় তিস্তা সেতুটি উদ্বোধন করে তা এই দুই জেলার মানুষকে উপহার হিসেবে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। উদ্বোধনের পরই জনসাধারণের চলাচলের জন্য খুলে দেওয়া হয়েছে সেতুটি ।

জানাগেছে, যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন ও ব্যবসা-বাণিজ্য বৃদ্ধির লক্ষ্যে রাজধানী ঢাকা এবং বিভাগীয় শহর রংপুরের সঙ্গে লালমনিরহাটের কয়েকটি উপজেলার দূরত্ব কমিয়ে আনতে কাকিনা-মহিপুর এলাকায় দ্বিতীয় তিস্তা সড়ক সেতু নির্মাণের উদ্যোগ নেয় সরকার।

রংপুর ও লালমনিরহাট জেলা প্রশাসন।
জানান লালমনিরহাটের বুড়িমারী স্থলবন্দরের সঙ্গে রাজধানী ও রংপুরের দূরত্ব কমিয়ে আনার লক্ষ্যে বৃহত্তর রংপুর-দিনাজপুর ভৌত অবকাঠামো উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ২০১২ সালে গঙ্গাচড়া উপজেলার মহিপুর ও লক্ষ্মীটারির মধ্যে দ্বিতীয় তিস্তা সেতুর নির্মাণকাজ শুরু হয়।

তিন দফা মেয়াদ বাড়িয়ে ২০১৭ সালে এ সেতুর নির্মাণকাজ শেষ হয়। স্থানীয় সরকার ও প্রকৌশল অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে (এলজিইডি) ৮৫০ মিটার দীর্ঘ ও ফুটপাতসহ ৯ দশমিক ৬ মিটার প্রস্থের সেতুটি নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ১২৩ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। সেতুর সংযোগ সড়কটি লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলার কাকিনা ইউনিয়নের রুদ্রেশ্বর থেকে রংপুরের গঙ্গাচড়া উপজেলার লক্ষ্মীটারী ইউনিয়নের মহিপুর এলাকায় বাংলাদেশ ব্যাংক মোড়ে যুক্ত হয়েছে।

এ কারণে শুরুতে এ সেতুকে ‘কাকিনা মহিপুর দ্বিতীয় তিস্তা সড়ক সেতু’ নামে ডাকা হলেও পরে এ সেতুর নামকরণ করা হয় ‘গঙ্গাচড়া শেখ হাসিনা তিস্তা সেতু’। মূল সেতুর সংযোগ সড়কের কাকিনা অংশে তিনটি কালভার্ট ও দুটি ছোট সেতু রয়েছে। এ ছাড়া ও মূল সেতু ও পুরো সড়কজুড়ে থাকবে আলোর ব্যবস্থা

ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ১৬ সেপ্টেম্বর বেলা ১১টায় এটি প্রধানমন্ত্রীর উদ্বোধন করেন ।

সংবাদ পড়ুন, লাইক দিন এবং শেয়ার করুন

Comments

comments

About গণমানুষের আওয়াজ.কম

x

Check Also

স্বাধীনতা যুদ্ধে পরাজিত শক্তি আবার মাঠে নেমেছে: সালমা ওসমান

মোঃ জাকির হোসেন, সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: ২০২১ সালে বাংলাদেশকে দারিদ্রমুক্ত করতে এবং নারায়ণগঞ্জকে মাদকাসক্ত মুক্ত করতে একাদশ ...

error: Content is protected !!