JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.
সংবাদ শিরোনাম:

টঙ্গীস্থ ’উন্মুক্ত থিয়েটার’এর  ত্রিশ বছর পূর্তি উৎসব পালিত

শাহজাহান সিরাজ সবুজ :: “এসো নাটকের মঞ্চে জীবনের কথা বলি” এই শ্লোগানকে সামনে রেখে টঙ্গীস্থ ’উন্মুক্ত থিয়েটার’ এর  ত্রিশ বছর পূর্তি উপলক্ষে টঙ্গীতে উন্মুক্ত পরিবারের আনন্দ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

রবিবার (৬ জানুয়ারি) সন্ধ্যা ৬টায় উন্মুক্ত থিয়েটারের প্রতিষ্ঠাতা সভাপতি শেকানুল ইসলাম শাহী ৩০ বছরের স্মৃতিচারণ এর মধ্য দিয়ে আলোচনা শুরু করেন।

স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে শেকানুল ইসলাম শাহী বলেন,  ১৯৮৯ সালের ৬ জানুয়ারি তারিখে টঙ্গীতে পদ্ধতিগত নাট্যচর্চার মাধ্যমে গণমুখী একটি সাংস্কৃতিক পরিবেশ সৃষ্টির আকাঙ্ক্ষায় “উন্মুক্ত থিয়েটার”এর পথচলা শুরু হয়েছিল। শুরুটা হয় রেপ্যার্টরি থিয়েটার হিসেবে। পরবর্তীতে গ্রুপ থিয়েটার। এই মাটির সন্তান হিসেবে, সামাজিক দায় ভেবে,নিজের সৃস্টিশীলতাকে অধিক শানিত করা এবং এ অঞ্চলে পদ্ধতিগত নাট্যচর্চার আবহ তৈরীর উদ্দেশ্যে টঙ্গী বাজারস্থ উদয়ন সংসদে নাট্যক্রিয়া শুরু করেছিলাম। উদ্বোধন করেছিলেন এডভোকেট আজমত উল্লা খান (সাবেক মেয়র,টঙ্গী পৌরসভা) এবং ড.রশীদ হারুন (বর্তমানে জাহাঙ্গীর নগর বিশ্ববিদ্যালয়ের নাটক ও নাট্যত্বত্ত্ব বিভাগের অধ্যাপক)।

শাহী আরো বলেন, সংগঠনের নাম কি হবে বা উদ্যোগটির নাম কি, অতশত ভাবিনি। এসব এসেছে সময়ের প্রয়োজনে। সে সময় টঙ্গীতে এমন ধারণার কোন নাট্যচর্চা ছিলনা। গর্বের বিষয়, এখন বেশ কয়েকটি দল গ্রুপ থিয়েটার চর্চা করছে।

৩০ বছর পূর্তিতে “উন্মুক্ত থিয়েটার” ‘উৎকর্ষতার ঘাটতি’কে স্মরণে নিয়ে শেকানুল ইসলাম বলেন, আমরা নাটক এবং শিল্পের অন্যান্য শাখা,যেমন – সঙ্গীত, আবৃত্তি, নৃত্য, শ্রুতি নাটকের নান্দনিক প্রযোজনার জন্য আনন্দবোধ করছে।

তিনি বলেন, “এসো নাটকের মঞ্চে জীবনের কথা বলি”, এই চেতনায় “উন্মুক্ত থিয়েটার” এগিয়ে চলবে মহান মুক্তিযুদ্ধের আকাঙ্ক্ষার পথে, আজও আমাদের এই প্রত্যয়।

এ’সময় থিয়েটারের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে আলোচনা করেন তামান্না ইসলাম, হাবিবুর রহমানসহ থিয়েটারের সদস্যরা।

উন্মুক্ত থিয়েটারের পক্ষ থেকে এই আনন্দক্ষনে সম্মিলিত সাংস্কৃতিক জোট,টঙ্গী এবং সমাভিমুখী সকল সাংস্কৃতিক সংগঠন,বন্ধু ও শুভাকাঙ্ক্ষী মহাত্মনদের বিনম্র শ্রদ্ধা জানানো হয়। কেক কাটার মধ্য দিয়ে আয়োজনের সমাপ্তি হয়।

সংবাদ পড়ুন, লাইক দিন এবং শেয়ার করুন

Comments

comments

About আওয়াজ অনলাইন

x

Check Also

ভৈরবে জমে উঠেছে উপজেলা নির্বাচন,নৌকা প্রার্থীর ব্যাপক প্রচারনা

এম আর ওয়াসিম, ভৈরব(কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি : তৃতীয় ধাপে অর্থ্যাৎ আগামী ২৪ মার্চ অনুষ্টিত উপজেলা পরিষদ নির্বাচনকে ...

error: Content is protected !!