JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.

নীলফামারীতে ৮৫৭ টি পূজা মন্ডবে শারদীয় দূর্গা পূজা অনুষ্ঠিত হবে

নীলফামারী থেকে মোঃ লিখন ইসলাম: আসন্ন শারদীয় দুর্গা পূজা উৎসব সুষ্ঠু ভাবে সম্পন্নের লক্ষে নীলফামারী জেলা প্রশাসনের আয়োজনে মতবিনিময় সভা করা হয়েছে। সোমবার (৮ অক্টোবর) দুপুরে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের সম্মেলন কক্ষে এই সভায় সভাপতিত্ব করেন জেলা প্রশাসক বেগম নাজিয়া শিরিন।
এসময় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন, জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ, র‌্যাব-১৩ নীলফামারী সিপিসি-২ এর কোম্পানী কমান্ডার মেজর এ.টি.এম নাজমুল হুদা, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) আজাহারুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট (এডিএম) খন্দকার নাহিদ হাসান, জেলা ত্রাণ ও পুর্নবাসন কর্মকর্তা আবু তাহের মোহাম্মদ আখতারুজ্জামান, সদর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুজার রহমান, ভাইস চেয়ারম্যান আরিফা সুলতানা লাভলী, জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অক্ষয় কুমার রায় প্রমুখ।
জেলা ত্রাণ ও পুর্নবাসন কর্মকর্তার দফতর সুত্র জানায়, এবারে নীলফামারী জেলার ছয় উপজেলার ৬০ ইউনিয়ন, চারটি পৌরসভায় মোট ৮৫৭টি মন্ডপে শারদীয় দুর্গা পূজা উৎসব অনুষ্ঠিত হবে। এরমধ্যে নীলফামারী সদরে ২৭৮টি, ডোমার উপজেলায় ৯৪টি, ডিমলা উপজেলায় ৭৬টি, জলঢাকা উপজেলায় ১৬৯টি, কিশোরীগঞ্জ উপজেলায় ১৫৩টি এবং সৈয়দপুর উপজেলায় ৮৭টি মন্ডপ রয়েছে।
পুলিশ সুপার মুহাম্মদ আশরাফ হোসেন জানান, উৎসব মুখর ও শান্তিপূর্ণ পরিবেশে শারদীয় দুর্গোৎসব স¤পন্নে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। তিনি বলেন, পূজাচলাকালে মন্ডপগুলোয় নিরাপত্তায় দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি টহল পুলিশ, সাদা পোশাকে পুলিশ এবং স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে আইন শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা।
জেলা পূজা উদযাপন কমিটির সভাপতি অক্ষয় কুমার রায় জানান, ইতোমধ্যে জেলার অধিকাংশ মন্ডপে প্রতিমা বানানোর কাজ শেষ পর্যায়ে। কিছু কিছু মন্ডপে এখনো কাজ চললেও তা দ্রুতই শেষ হবে। কয়েকদিন পরেই শুরু হবে রঙের কাজ। পাশাপাশি চলছে সাজ সজ্জার কাজও।
উল্লেখ্য, গত বছর জেলায় ৮৩৬টি মন্ডপে দুর্গোৎসব অনুষ্ঠিত হয়। এরমধ্যে ছিলো ডিমলায় ৭৭টি, ডোমারে ৯৩টি, জলঢাকায় ১৬৪টি, কিশোরগঞ্জে ১৪৪টি, নীলফামারী সদরে ২৭৮টি এবং সৈয়দপুরে ৮০টি। এবার ২১টি মন্ডব বেশী। আবার ২০১৭ সালে মন্ডব ছিল ৮২২টি। সেই হিসাবে ৩৫টি বেশী মন্ডব হয়েছে।
সংবাদ পড়ুন, লাইক দিন এবং শেয়ার করুন

Comments

comments

About আওয়াজ অনলাইন

x

Check Also

ধুনট সোনাহাটায় বিএনপির মতবিনিময় সভা

এম. এ. রাশেদ বগুড়া প্রতিনিধিঃ বগুড়ার ধুনট উপজেলার সোনাহাটা বাজারে বিএনপির মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। বুধবার ...

error: Content is protected !!