হোম » প্রধান সংবাদ » পীরগঞ্জে ১০৯ এ কল করে স্বামীর নির্যাতন থেকে প্রাণে রক্ষা

পীরগঞ্জে ১০৯ এ কল করে স্বামীর নির্যাতন থেকে প্রাণে রক্ষা

পীরগঞ্জ(ঠাকুরগাঁও)প্রতিনিধিঃ ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার একান্নপুর গ্রামের মোশাররফ হোসেন নামে এক পাষাÐ স্বামী যৌতুকের জন্য মারপিট করে গুরুতর আহত করেছেন স্ত্রী মোছা. সাথী আক্তারকে। ওই নারী বর্তমানে সুচিকিৎসার জন্য পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আঘাতের যন্ত্রনায় কাতরাচ্ছে। জানা যায়, গত ৩ আগস্ট মোছা. সাথী আক্তারকে তালাক দেয়ার প্ররোচনামূলক কথা বলেন একই গ্রামের মোশাররফের সহযোগী এক ব্যক্তি।

 

তার কথায় ক্ষিপ্ত হয়ে মোশাররফ হোসেন স্ত্রীকে কাপড় ধোয়ার বাঁশের মুগুর দিয়ে এলোপাতাড়ি মারপিটে রক্তাক্ত জখম করেন এবং ঘরে বন্দি করে নির্যাতন চালায়। এসময় মোশারফ ঘর থেকেসাথী দ্রুত নারী ও শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ জরুরি হটলাইন নম্বর ১০৯ এ কল দিয়ে সাহায্য চান। এতেই যেন সাথীর প্রাণ রক্ষা পায়। পীরগঞ্জ থানার পুলিশ গিয়ে ওই এলাকার ইউপি সদস্যের জিম্মায় রাখেন সাথী আক্তারকে। পরে দ্রুত চিকিৎসার জন্য তাঁর পিতার নিকট জিম্মা দেন ইউপি সদস্য। তৎক্ষনাৎ সাথী আক্তারের পিতা শরিফুল ইসলাম মারপিটে আহত কন্যাকে পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করান।

এ বিষয়ে গত ৫ আগস্ট বাদী হয়ে ১ নং আসামি মোশাররফ হোসেনসহ ৪ জনের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন। এ বিষয়ে সাথী আক্তারের সাথে কথা হলে তিনি বলেন, বিয়ের পর থেকে এখন পর্যন্ত সে আমার প্রতি যত নির্যাতন চালিয়ে আমার শরীরের এমন কোনো জায়গা বাদ নেই যে সে মারে নি। আমার যন্ত্রনা আমি বুঝি মাইরের দাগ গুলো হয়তো কিছুদিন পরপর চলে যায় কিন্তু এর ব্যাথাটা বহুদিন পর্যন্ত থাকে। আমি বর্তমানে খুব অসুস্থ থাকায় পীরগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছি। তাই আমি মোশাররফ হোসেনের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য পীরগঞ্জ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!