হোম » প্রধান সংবাদ » করোনা টেস্ট না করেই লকডাউনে আটকে গেছে কোরবানের পরিবার

করোনা টেস্ট না করেই লকডাউনে আটকে গেছে কোরবানের পরিবার

নাসিম আহমেদ রিয়াদ, সিরাজগঞ্জঃ করোনা টেস্ট না করেই লকডাউনে আটকানো হয়েছে রায়গঞ্জ পৌরসভা কোরবান আলীর পরিবারকে। তাঁর অপরাধ তার স্ত্রী মাহফুজা যে বাড়িতে কাজ করে সেই বাড়ির ভাড়াটিয়ার মধ্য ২জন গত সপ্তাহে করোনা পজিটিভ হয়েছে। খবরটি জেনেই দেরি না করে রায়গঞ্জ পৌরসভার ১ নং ওয়ার্ডের কমিশনার নুরনবী সরকার এসে লাল পতাকা টাঙ্গিয়ে দিয়ে লকডাউনে আটকে রেখে দেয় কোরবানের পরিবারকে।
এতে নানা রকম সামাজিক বিড়ম্বনায় পড়েছে ঐ পরিবারটি। গেল তিন দিন ধরে তাদের এ অবস্থায় ফেলে রেখে গেলেও কোন খবর নেয়নি কমিশনার।
স্বামী ভ্যান চালক একদিন ভ্যান গাড়ি চালাতে গেলেও তাকে আর বাহিরে বের না হওয়ার জন্য সতর্ক করে দিয়েছে কমিশনার।ঐ পরিবারের অভিযোগ, আমরা পুরোপুরি সুস্থ জীবন যাপন করছি। অথচ সারা এলাকায় প্রচার হয়েছে আমরা করোনায় আক্রান্ত। লজ্জায় মুখ দেখাতে পারছি না বলে জানান মাহফুজা। মাহফুজা বলেন, আমাদের কোন টেষ্ট না করেই যে অপবাদ দেয়া হয়েছে এর সুষ্ট বিচার চাই।
সরেজমিন রায়গঞ্জ পৌরসভার ১নং ওয়ার্ডের গুচ্ছগ্রামে গিয়ে দেখা যায়, পরিবারটি পুরোপুরি লকডাউনেই আটকে আছে। লাল পতাকা বাঁশের টানিয়ে বাশ দিয়ে পথ আটকানো রয়েছে। সেই সঙ্গ ঐ পরিবারের সদস্য ও গবাদী পশু খাবার সংকটে আছে।
এ ব্যাপারে ঐ ওয়ার্ডের কমিশনর নুরনবী সরকার বলেন, কোরবানে স্ত্রী যে বাড়িতে কাজ করত সে বাড়ির দুইজনের করোনা পজিটিভ হওয়ায় তাকে এ অবস্থায় রাখা হয়েছে। যেন সেটা না ছড়িয়ে পড়ে।স্থানীয় পৌর মেয়র আব্দুল্লাহ আল পাঠান বলেন, সতর্কতার জন্য ঐ পরিবারটিকে লকডাউন দেয়া হয়েছে। এটা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলেই করা হয়েছে।
শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!