জিয়াউর রহমান নির্বাচন কে প্রহসনের রূপ দিয়েছিলেনঃ ওবায়দুল কাদের

রায়হান আলীঃ বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, দলের শৃঙ্খলা ভঙ্গ করলে কাউকেই ছাড় দেওয়া হবে না? মানুষের সঙ্গে ভালো ব্যবহার করতে হবে। একটি খারাব আচরণ ১০টি ভাল কাজ ¤øান করে দেয়। মনে রাখতে হবে, জনগণই ক্ষমতার উৎস। কাজেই তাদের স্বার্থকে সবসময়ই প্রাধান্য দিতে হবে। ওবায়দুল কাদের শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারী) সিরাজগঞ্জের উল্লাপাড়া বিজ্ঞান কলেজ মাঠে উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথি হিসেবে ভার্চুয়ালি যোগ দিয়ে কথাগুলো বলেন। তিনি আরো বলেন, মহান মুক্তিযুদ্ধে জিয়াউর রহমান সেক্টর কমান্ডার ছিলেন। কিন্তু স্বাধীনতার পরবর্তী সময়ে তিনি নিজেকে নিজেই বির্তকিত করেছেন। ইতিহাস তাকে কাঠগঁড়ায় দাঁড় করিয়েছেন। তিনি সা¤প্রদায়িক শক্তিকে রাজনীতি করার সুযোগ করে দিয়েছেন এবং বঙ্গবন্ধুর খুনিদের বিদেশে পালিয়ে যেতে সহযোগিতা দিয়েছেন। এমনকি তাদেরকে প্রতিষ্ঠিত করেছেন,বিভিন্ন বিদেশি মিশনে চাকরি দিয়েছেন। জাতি তার এই কর্মকান্ড কোনদিন ক্ষমা করবে না। ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, বিএনপি বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ভাষনের দিন ৭ই মার্চকে পালনের উদ্যোগ নিয়েছেন। তিনি এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আজ করোনার চরম মহামারীর সময়ই অর্থনৈতিক দিক থেকে বাংলাদেশ প্রতিবেশী দেশগুলোর তুলনায় অনেক এগিয়ে আছে। একই সঙ্গে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশে পরিনত হচ্ছে। এজন্য তিনি প্রধানমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন।

সম্মেলনকে কেন্দ্র করে সেতুমন্ত্রী বলেন, জিয়াউর রহমান নির্বাচন কে প্রহসনের রূপ দিয়েছিলেন। সা¤প্রতিক অনুষ্ঠিত পৌরসভা নির্বাচনকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, যারা দলের বিদ্রোহী হিসেবে প্রার্থী হয়েছিলেন বা প্রার্থী হয়ে নির্বাচিত হয়েছেন তাদেরকে আর কখনো দল থেকে মনোনয়ন দেওয়া হবে না। দলেও থাকবে না তাদের পদ পদবী। একই সঙ্গে এদেরকে যারা মদদ দিয়েছেন কেন্দ্র তাদেরও তালিকা প্রস্তুত করছে। ওবায়দুল কাদের বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে আরো এগিয়ে নিতে দলের সভাপতি জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মীসহ সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে এগিয়ে আসার আহŸান জানান। উল্লাপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের আহŸায়ক বীর মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে এবং পৌর মেয়র এস এম নজরুল ইসলামের সঞ্চালনায় সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে আরো বক্তব্য রাখেন, আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক (রাজশাহী বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত) এস এম কামাল হোসেন, সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য অধ্যাপক মেরিনা জাহান কবিতা, আব্দুল আওয়াল শামীম, তানভীর ইমাম এমপি, অধ্যাপক ডাঃ আব্দুল আজিজ এমপি, জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি কে এম হোসেন আলী হাসান, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ তালুকদার, সিরাজগঞ্জ জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল লতিফ বিশ্বাস, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আবু ইউসুফ সুর্য, আওয়ামী লীগ নেতা সেলিম আহমেদ, এ্যাড. বিমল কুমার দাস, উল্লাপাড়া উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফি প্রমুখ।