কাজলের পানির নিচে হানিমুন 

আওয়াজ বিনোদনঃ বিনোদন ডেস্ক : মধুচন্দ্রিমায় গিয়েছেন সদ্য বিবাহিতা দক্ষিণের জনপ্রিয় অভিনেত্রী কাজল আগারওয়াল। রবিবার অভিনেত্রী তার ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইলে কিছু ছবি আপলোড করেন ভক্তদের উদ্দ্যেশে। কাজলের মধুচন্দ্রিমায় কাটানো সময়গুলোর ছবি কাউকে ঈর্ষায়, আবার কাউকে আক্ষেপের সাগরে ভাসিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। কাজল তার স্বামী গৌতম কিসলুকে নিয়ে এখন মালদ্বীপের কনরাড দ্বীপে অবকাশযাপন করছেন।

কাজলের ইনস্টাগ্রামের একটি ছবিতে দেখা যায়, লাল বিচ গাউনে তাকে জড়িয়ে রেখেছেন স্বামী গৌতম। ক্যাপশনে লেখা, ‘সুন্দর তুমি’।

কাজলের মতো তার স্বামীও ইনস্টাগ্রামে পোস্ট করা থেকে পিছিয়ে নেই। মালদ্বীপে পৌঁছে গৌতম লিখেন, ‘বেড়াতে বের হয়ে নিজেকে সৌভাগ্যবান মনে হচ্ছে। অবশ্য সতর্কতার সঙ্গেই বের হয়েছি। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক দিনে ফিরছি…।’

গৌতম ও কাজলের ইনস্টাগ্রাম পোস্ট থেকে জানা যায়, মালদ্বীপে রাঙ্গালি আইল্যান্ড রিসোর্টে তারা অবস্থান করছেন। এ হোটেলটি রাঙ্গালি দ্বীপের পানির নিচে অবস্থিত।

পানির নিচে হানিমুনে কাজল
এখানেই তৈরি হতে যাচ্ছে বিশ্বের প্রথম অর্ধনিমজ্জিত জাদুঘর। সমুদ্র ভূ-পৃষ্ঠের প্রায় ১৬ ফুট নিচে কনরাড মালদ্বীপ রাঙ্গালি আইল্যান্ড হোটেলের ভেতরে রয়েছে কাঁচে ঘেরা একটি রেস্তোরাঁ। যেখানে বসে সামুদ্রিক প্রাণীদের চলাফেরা করতে দেখা যায়। এই হোটেলে এক রাত থাকতে খরচ করতে হয় প্রায় ৫০ হাজার ডলার, যা বাংলাদেশি টাকায় ৩৩ লাখেরও বেশি।

সংগৃহীত