পাবনা-৪ আসনের উপনির্বাচনে জনপ্রিয়তার সিঁড়ি বেয়ে এগিয়ে চলছে নুরুজ্জামান বিশ্বাস

শহিদুল ইসরাম, ঈশ্বরদী প্রতিনিধি : স্বাধীনতার আগে থেকে ছাত্রলীগ দিয়ে শুরু করা দীর্ঘ ২৫ বছর ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন। স্বাধীনতা যুদ্ধে ঈশ্বরদী উপজেলা মুজিব বাহিনীর আঞ্চলিক প্রধান হিসাবে সরাসরি যুদ্ধে অংশ নিয়েছেন। ঈশ্বরদী উপজেলা ছাত্রলীগ এর প্রতিষ্ঠাকালিন ছাত্রলীগ এর সাধারণ সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। এরপর পর্যায়ক্রমে রাজনীতির ধারাবাহিকতায় এখন প্রবীণ নেতাদের তালিকায় বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ এর অন্যতম নেতা আলহাজ্ব নুরুজ্জামান বিশ্বাস।

জনপ্রিয়তার সিঁড়ি বেয়ে তিনি ইতোমধ্যে ঈশ্বরদী উপজেলা পরিষদের তৃতীয় বারের মতো বিপুল ভােটে নির্বাচিত চেয়ারম্যান হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। বঙ্গবন্ধুর প্রিয়ভাজন ছিলেন যুবক নুরুজ্জামান বিশ্বাস। এখনাে দেখা হলে বুকে জড়িয় ধরেন আওয়ামীলীগ এর অন্যতম কেন্দ্রিয় নেতা তােফায়েল আহমেদ। সিনিয়র নেতাদের অনেকেই তাকে একজন ভালা মানুষ হিসেবে মূল্যায়ন করেন। আসন্ন পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া)’র উপ-নির্বাচনে তিনি এবার দলীয় মনােনয়ন প্রত্যাশী। তিনি জানান, আওয়ামীলীগ আমার জীবনের সর্বত্র জড়িয়ে আছে। যা কিছু ভাল তার সাথে সব সময় থাকার চেষ্টা করেছি।

অর্থের প্রলোভন আমাকে কখনো আদর্শ থেকে বিচ্যুত করতে পারেনি, ভবিষ্যতেও পারবে না। ঈশ্বরদী-আটঘরিয়াবাসীর দােয়া নিয়ে এবার সংসদ সদস্য হয়ে দেশবাসীর সেবা করতে চাই। আমার বিশ্বাস বঙ্গবন্ধু কন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনা আমাকে মূল্যায়ন করে মনােনয়ন দিবেন। পাবনা জেলা আওয়ামীলীগ এর সিনিয়র সহ-সভাপতি মা: নুরুজ্জামান বিশ্বাস ১৯৯০ ও ২০০৯ সাল দুই মেয়াদ উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ছিলেন। গত ১৮ই মার্চ ২০১৯ পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনের দ্বিতীয় ধাপ অনুষ্ঠিত ঈশ্বরদী উপজেলায় নৌকা মার্কার প্রার্থী হিসেবে বীর মুক্তিযাদ্ধা মা: নুরুজ্জামান বিশ্বাস ৪২ হাজার ২৩১ ভােট পেয়ে নির্বাচিত হন।

তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী দলীয় বিদ্রাহী প্রার্থী ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সাধারণ সম্পাদক মকলেছুর রহমান মিন্টু (আনারস) প্রতীক ১৮ হাজার ৯২৩ ভােট পেয়ে পরাজিত হন। নুরুজ্জামান বিশ্বাস ১৯৭৮ সাল কারাগারে থাকা অবস্থায় পাবনা জেলা আওয়ামীলীগ এর সদস্য মনোনীত হন। ১৯৮৪ সাল ঈশ্বরদী-উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সাধারণ সম্পাদক এবং পর পর চার চারবার কাউন্সিল উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সাধারণ সম্পাদক হিসেবে মনোনীত হন। ২০০৫ সাল পর্যন্ত তিনি ঈশ্বরদী উপজেলা আওয়ামীলীগ এর সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। ২০০৫ সাল পাবনা জেলা আওয়ামীলীগ এর যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মনােনীত হন তিনি। বর্তমান তিনি পাবনা জেলা আওয়ামীলীগ এর সহ-সভাপতির দায়িত্বে রয়েছেন।