JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.

ইউএনও জয়ন্তী রূপা রায়ের কাজে বদলে যাচ্ছে আলফাডাঙ্গা

মিয়া রাকিবুল,আলফাডাঙ্গাঃ মাত্র এক বছরে নানা ধরনের উন্নয়ন ও সেবামূলক কাজ করে উন্নয়নমুখী,শিক্ষা ও জনবান্ধব একজন ইউএনও হিসেবে পরিচিতি পেয়েছেন ফরিদপুর জেলার আলফাডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়ন্তী রূপা রায়।আলফাডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়ন্তী রূপা রায় এ উপজেলায় যোগ দেওয়ার পর থেকেই আলফাডাঙ্গায় বড় ধরনের সমস্যাগুলো সমাধানে তিনি সফলতার স্বাক্ষর রেখেছেন।তার প্রশংসা এখন আলফাডাঙ্গার সর্বত্র।সাধারণ মানুষের মুখে মুখে তার সততা ও সাহসী পদক্ষেপের কথা।
জানা যায়,২০১৭সালের ২অক্টোবর আলফাডাঙ্গাতে উপজেলা নির্বাহী অফিসার হিসাবে যোগদান করেন জয়ন্তী রূপা রায়।এসেই তিনি আলফাডাঙ্গার শিক্ষা সংস্কৃতি ও জনদুর্ভোগ লাঘবে কাজ করার ইচ্ছা ব্যক্ত করে আলফাডাঙ্গাবাসীর সহযোগিতা চান।সৎ, কর্মঠ, উদ্দমী এই অফিসার কয়েক মাসের মধ্যে আলফাডাঙ্গার শিক্ষা ক্ষেত্রে চিত্রপট বদলে দেন।আলফাডাঙ্গা উপজেলাবাসীর আরেকটি দীর্ঘদিনের সমস্যা ছিলো রাস্তার পাশে অবৈধ স্থাপনা ও জায়গা দখল।উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে সেসব অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান শুরু করেন এবং সর্ব মহলে প্রশংসা কুড়ায়।
আধুনিক জনপ্রশাসনকে আরও গতিশীল ও জনমুখী করতে জনগণের সমস্যা সম্ভবনা নিয়ে উপজেলা প্রশাসকের দপ্তরে গণশুনানী নামে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়ন্তী রূপা রায়ের সাথে জনগণের আলোচনা/সাক্ষাৎকার অনুষ্ঠিত হচ্ছে।ফলে গণশুনানীর মাধ্যমে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনগণের অভাব, অভিযোগ, আবেদন, নিবেদন শুনছেন এবং তাৎক্ষণিকভাবে নিষ্পত্তিযোগ্য বিষয়সমূহ তৎক্ষণাৎ নিষ্পত্তি করে জনগণকে সেবা প্রদান করছেন।
বাল্য বিবাহ বন্ধ ও মাদক প্রতিরোধে তার ভূমিকা প্রশংসনীয়।উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জয়ন্তী রূপা রায়ের যোগদানের পর থেকে বেশ কয়েকটি বাল্য বিবাহ বন্ধ করে জেল জরিমানা দিয়েছেন ফলে এখন বাল্যবিবাহ প্রায় বন্ধ।
স্থানীয় জাতীয় সংসদ সদস্যের আন্তরিক সহযোগীতায় তিনি তৃণমূল পর্যায়ের অবকাঠামোগত উন্নয়ন যেমন: টিআর, কাবিখা, কাবিটা, এডিপি, এলজিএসপি, স্থানীয় সরকার বিভাগের ব্রীজ, কালভার্ট, সড়ক এবং শিক্ষা বিভাগে উন্নয়ন যেমন: স্কুল কলেজ ও মাদরাসার ভবণ নির্মানের (টেন্ডারের) কাজ ইত্যাদি যথাসময়ে শেষ করার এবং স্বচ্চতা নিশ্চিত করা সহ কাজের মান ধরে রাখার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন।
উপজেলার হেলেঞ্চা গ্রামের এক বৃদ্ধের সাথে উপজেলা কার্যালয়ের সামনে কথা বলে জানা যায়,তিনি একটি কাজে উপজেলা নির্বাহী অফিসারের নিকট এসেছে।আলাপচারিতার সময় তিনি জানান আগে ইউএনও স্যারের কাছে কোনো কাজের জন্য আসলে সমাধানের জন্য অনেক সময় অপেক্ষা করতে হতো।কিন্তু এই স্যারের নিকট আমি যতবার এসেছি ততবারই তিনি যতদ্রুত সম্ভব বিষয়টি সমাধানের জন্য চেষ্টা করেছেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়ন্তী রূপা রায় সম্পর্কে উপজেলার মাদক নির্মূল কমিটির সভাপতি হাদী ইবনে জালাল বলেন, মাদক নির্মূলে তিনি খুবই আন্তরিক এবং তিনি আমাদের মাদক মুক্ত আলফাডাঙ্গা গড়তে সর্ব প্রকার সহযোগিতা ও পরামর্শ প্রদান করে যাচ্ছে।
উপজেলার জাটীগ্রাম মমতাজউদ্দীন মেমোরিয়াল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কৃষ্ণ চন্দ্র মন্ডল বলেন,উপজেলা নির্বাহী অফিসারের অগ্রণী ভূমিকা ও নির্দেশনায় সমগ্র উপজেলার শিক্ষা ক্ষেত্রে ব্যাপক প্রসারিত হচ্ছে।
এবিষয়ে ৩নং আলফাডাঙ্গা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এ.কে.এম আহাদুল হাচান (আহাদ) বলেন, আমাদের ইউএনও একজন চৌকশ অফিসার।আলফাডাঙ্গার উন্নয়নে তিনি সর্বদা কাজ করে যাচ্ছেন।
উপজেলা নির্বাহী অফিসার জয়ন্তী রূপা রায় বলেন,আমি কাজের মানুষ কাজ পছন্দ করি।সকলের সহযোগীতায় আলফাডাঙ্গাকে আদর্শ উপজেলা হিসেবে গড়ে তুলতে আমি সর্বদা চেষ্টা করছি।
এছাড়াও জয়ন্তী রূপা রায়ের নানা সেবামূলক কাজ করার মাধ্যমে আলফাডাঙ্গাবাসীর মানুষের হৃদয়ে স্থান করে নিয়েছেন।
সংবাদ পড়ুন, লাইক দিন এবং শেয়ার করুন

Comments

comments

About গণমানুষের আওয়াজ.কম

x

Check Also

আলফাডাঙ্গায় নৌকার বিশেষ আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত

মিয়া রাকিবুল,আলফাডাঙ্গা প্রতিনিধিঃ আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ফরিদপুর-১ (আলফাডাঙ্গা,বোয়ালমারী ও মধুখালী) আসনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনীত ...

error: Content is protected !!