হোম » আন্তর্জাতিক » সোনারগাঁওয়ের বিশ্ব কারুশিল্প শহরের মর্যাদা লাভ

সোনারগাঁওয়ের বিশ্ব কারুশিল্প শহরের মর্যাদা লাভ

মোঃ কবির হোসেন,
বিশ্ব কারুশিল্প শহরের মর্যাদা পেয়েছে চতুর্দশ শতকের মসলিন খ্যাত বাংলার ঐতিহ্যবাহী রাজধানী সোনারগাঁও। আবহমান গ্রাম বাংলার হাজার বছরের লালিত ঐতিহ্য, শিল্প-সাহিত্য, সংস্কৃতি, কৃষ্টি, আচার-আচরণ ও গ্রাম্য অসংখ্য বিলীয়মান হস্ত কারুশিল্প প্রদর্শনী ও বিক্রির মাধ্যমে জনমনে পরিচয় ঘটানোর জন্য এখানকার কারুশিল্প ফাউন্ডেশনও বিভিন্ন কারুশিল্পীরা অব্যাহতভাবে ভূমিকা রেখে আসছিল। এরই মধ্যে  জামদানি উৎসব আয়োজনের মূল অনুষঙ্গ হিসেবে বিশ্ব কারুশিল্প পরিষদের (ডব্লিউসিসি) কাছে সোনারগাঁওকে কারুশিল্প শহরের মর্যাদা দিতে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে আবেদন করা হয়েছিল। বাংলাদেশ কারুশিল্প ফাউন্ডেশন ও জামদানি উৎসবের আয়োজক বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের পক্ষ থেকে এ আবেদন করা হয়। অবশেষে মিলেছে সেই স্বীকৃতি। বেঙ্গল ফাউন্ডেশন জানায়, বাংলাদেশের পক্ষ থেকে আবেদনের পর গত সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ডব্লিউসিসির বিচারক দল সোনারগাঁওয়ে কয়েকটি এলাকা পরিদর্শন করেন। এসময় বিচারক দল জামদানি ও তাঁতশিল্প দেখে মুগ্ধ হন। এরপর জামদানি ও তাঁতশিল্পের জন্য সোনারগাঁওকে বিশ্ব কারুশিল্প শহরের মর্যাদা দেয়ার চিঠি পৌঁছে দেন বেঙ্গল ফাউন্ডেশনের কাছে। এ চিঠির মাধ্যমে এই প্রথম বাংলাদেশের কোনো স্থান বিশ্ব কারুশিল্প শহরের মর্যাদা লাভ করল। বাংলাদেশ সরকার ও স্থানীয় প্রশাসনের উদার সহযোগিতায় সোনারগাঁওয়ের জন্য এই গৌরব বয়ে এনেছে। এলাকাবাসীর অভিমত, জামদানি শিল্পের পীঠস্থান হিসেবে সোনারগাঁওয়ের সুনাম ও কৃতিত্ব এবার বিশ্বদরবারে প্রতিষ্ঠিত হবে। একইসঙ্গে উন্মোচিত হবে ক্রিয়েটিভ ট্যুরিজমের দ্বার। বিস্তৃত হবে স্থানীয় উদ্ভাবনী শক্তি, মেধা ও অভিজ্ঞতার পরিধি। শিল্পের পরিধী আরও বিস্তৃতি লাভ করবে। বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশন সূত্রে জানা যায়, সোনারগাঁওয়ের স্বীকৃতি এখন জাতীয়, আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক পর্যায়ে অভিজ্ঞতা ও কৌশল বিনিময়ের ক্ষেত্র তৈরি করবে। একই সঙ্গে এটি ভারতের মহাবলিপুরম (পাথর খোদাই) ও জয়পুর (গহনা), চীনের ফুশিন (অ্যাগেট), থাইল্যান্ডের সাখন নাখন (ইন্ডিগোডাই), ডেনমার্কের বর্নহোম (সিরামিক), ইরানের কারপোরগান (মৃৎশিল্প) ও ইসফাহানসহ বিশ্বের অন্যান্য কারুশিল্প শহরের সঙ্গে সহযোগিতা, অংশীদারিত্ব ও বিনিময়ের অভিনব সুযোগ সৃষ্টি করবে। বাংলাদেশ লোক ও কারুশিল্প ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক রবিউল ইসলাম জানান, বিশ্ব কারুশিল্প শহরের মর্যাদা পাওয়ায় ঐতিহাসিক সোনারগাঁ আরেকটি ইতিহাস রচনা করল।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!