হোম » আইন-আদালত » যৌতুক মামলায় আইনজীবী মনিরুল ইসলাম আকাশের কারাদণ্ড

যৌতুক মামলায় আইনজীবী মনিরুল ইসলাম আকাশের কারাদণ্ড

আওয়াজ অনলাইন : যৌতুকের দাবিতে স্ত্রীকে নির্যাতনের মামলায় মো. মনিরুল ইসলাম আকাশ নামের এক আইনজীবীকে এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মো. মামুনুর রহমান সিদ্দিকী এ রায় ঘোষণা করেন। বাদীপক্ষের আইনজীবী আজাদ রহমান এ বিষয়ে অনলাইনকে নিশ্চিত করেছেন।

নথি থেকে জানা গেছে, রাজধানীর কদমতলী থানাধীন পূর্ব জুরাইনের প্রয়াত বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী মুনশির মেয়ে ফাহিমা বেগম লিজা ২০১৩ সালে ঢাকা সিএমএম আদালতে এ মামলা করেন।

আরজিতে বলা হয়েছে, আকাশ আগের বিয়ে ও বাচ্চার তথ্য গোপন করে মিথ্যা প্রলোভনে তার সঙ্গে সম্পর্ক গড়ে তোলেন। ২০১৩ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি ইসলামী শরিয়া মোতাবেক ১০ লাখ টাকা দেনমোহরে তাদের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর ২০১৩ সালের ১৪ মার্চ আকাশ বাদীর কাছে বাড়ি মেরামতের জন্য ৪ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন।

বাদী সরল বিশ্বাসে নিজের গহনা বিক্রি করে ও সঞ্চিত অর্থ থেকে ৪ লাখ টাকা আসামিকে দেন। কিছুদিন পর পুনরায় আসামি বাদীর কাছে ৫ লাখ টাকা যৌতুক দাবি করেন। তখন বাদী বলেন, ‘আমার বাবা নেই। আমি এত টাকা কোথায় পাব? আমার জমানো টাকা তোমাকে আগে দিয়েছি।’

এরপর প্রায় প্রতি রাতেই বাদীকে যৌতুকের জন্য মারধর করতেন আসামি। সর্বশেষ ২০১৩ সালের ২৬ মে রাত ১০টার দিকে আসামি বাদীর বাসায় এসে দাবিকৃত যৌতুকের টাকা জোগাড় হয়েছে কি না, তা জিজ্ঞেস করেন। টাকা দিতে না পারলে বাদীকে ডিভোর্স দেওয়ার হুমকি দেন।
ছবি: সংগৃহীত।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!