হোম » আন্তর্জাতিক » মস্কোর ভবনের ছাদে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা

মস্কোর ভবনের ছাদে প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা

আওয়াজ অনলাইন: রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধ যেনো কোনোভাবেই শেষ হচ্ছে না। বিশ্বের পরাশক্তিগুলো দুই ভাগে ভাগ হয়ে মিত্র শক্তিকে নিয়ে লড়ে যাচ্ছে। দুই দেশের নাগরিকরাও রয়েছে চরম বিপাকে। রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধ পরমাণু যুদ্ধের দিকে এগোতে পারে এ বিষয়ে রাশিয়া বার বার হুমকি দিয়ে আসছে। রাশিয়ার রাজধানী মস্কোর বিভিন্ন ভবনের ছাদে ছাদে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা মোতায়েন করা হয়েছে। 

এছাড়া ক্রেমলিন থেকে আনুমানিক দুই কিলোমিটার দূরে একটি ভবনের ছাদে পন্তশির-এস১ বিমানবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থা দেখা গেছে। রাশিয়ার প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ের ভবনের ছাদেও দেখা গেছে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা।

মস্কোয় মন্ত্রণালয়গুলোর প্রধান ভবনেও বিমানবিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র ব্যবস্থার মতো কিছু দেখা গেছে। এতে ক্রেমলিন রাশিয়ায় সম্ভাব্য হামলার প্রস্তুতি নিচ্ছে কি না- এমন প্রশ্ন রুশদের জনমনে।

গত শুক্রবার (২০ জানুয়ারি) এই প্রশ্নের উত্তরে ক্রেমলিনের মুখপাত্র দিমিত্রি পেসকভ বলেন, সাধারণত প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় দেশের নিরাপত্তার বিষয়টি নিশ্চিত করার দায়িত্বপ্রাপ্ত, বিশেষত রাজধানী মস্কোর। ফলে যেসব পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে, সে সম্পর্কে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ই ভালো বলতে পারবে।

তবে প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয়ে যোগাযোগ করা হলেও তাৎক্ষণিক কোনো সাড়া পায় যায়নি।

ইউক্রেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর একজন উপদেষ্টা অ্যান্তন গেরাশেঙ্কো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে একটি ভিডিও ফুটেজ পোস্ট করেছেন। সেখানে তিনি লিখেছেন, এসব কী হচ্ছে, আমি তো অবাক হচ্ছি।

বিশ্ব নেতাদের আহ্বান, অতিদ্রুত রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধ এখানেই সমাপ্তি টানা দরকার। তা না হলে পুরো ইউরোপ জুড়ে সংকট দেখা যাবে।

রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধ শুধু ইউরোপকেই সংকটে ফেলে দিচ্ছে না ; এর প্রভাব সারা পৃথিবীতেই পড়ছে । অদূর ভবিষ্যতে আরো পড়বে বলে বিশেষজ্ঞদের অভিমত।

দ্রুত এই সংকট কেটে ওঠার জন্য রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধ সমাপ্তি ছাড়া কোনো উপায় খুঁজে পাচ্ছে না সমর বিশেষজ্ঞরা।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!