হোম » আন্তর্জাতিক » শ্রীলঙ্কায় জ্বালানি তেল নিয়ে চরম বিশৃঙ্খলা, সেনাবাহিনীর গুলি

শ্রীলঙ্কায় জ্বালানি তেল নিয়ে চরম বিশৃঙ্খলা, সেনাবাহিনীর গুলি

শ্রীলঙ্কার জ্বালানি তেলের স্টেশনগুলোতে চরম বিশৃঙ্খলা দেখা দিয়েছে। পেট্রল ও ডিজেলের জন্য ফের দেশটিতে মানুষের লাইন ক্রমেই দীর্ঘ হচ্ছে। এ অবস্থায় যেকোনো ধরনের দাঙ্গা নিয়ন্ত্রণে গুলি ছুড়েছে সেনাবাহিনীর সদস্যরা।

সেনাবাহিনীর মুখপাত্র নীলান্ত প্রেমারত্নে বলেছেন, শনিবার রাতে কলম্বো থেকে ৩৬৫ কিলোমিটার উত্তরে ভিসুভামাডুতে সৈন্যরা গুলি চালায়। কারণ তাদের গার্ড পয়েন্টে পাথর ছোড়া হয়েছিল।

পুলিশ জানিয়েছে, ক্রমবর্ধমান অর্থনৈতিক সংকটের সঙ্গে যুক্ত অস্থিরতা নিয়ন্ত্রণে সেনাবাহিনী প্রথমবারের মতো গুলি চালিয়েছে। এতে চার বেসামরিক নাগরিক ও তিনজন সেনা সদস্য আহত হয়েছেন।

পুলিশ আরও জানিয়েছে, স্টেশনগুলোতে তেল শেষ হয়ে গিয়েছে। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে বিক্ষোভ শুরু করে চালকরা। এক পর্যায়ে বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে সেনাবাহিনীর সংঘর্ষ হয়।

১৯৪৮ সালে ব্রিটেনের কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভের পর প্রথমবারের মতো দেউলিয়া রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে শ্রীলঙ্কা। এরই মধ্যে দেশটির বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভের পরিমাণ তলানিতে ঠেকেছে। দ্বীপ রাষ্ট্রটির বাণিজ্যিক ব্যাংকগুলো খাদ্য, জ্বালানি ও ওষুধ আমদানিতে ডলার সরবরাহ করতে পারছে না।

এর আগে তেল-গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি ও বিতরণ ব্যবস্থায় সৃষ্ট অরাজকতা মোকাবিলায় সেনা নামানোর ঘোষণা দেয় শ্রীলঙ্কা। মঙ্গলবার (২২ মার্চ) দেশটির শত শত গ্যাস স্টেশন ও পেট্রল পাম্পে সেনা মোতায়েনের নির্দেশ দেয় লঙ্কান সরকার।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!