হোম » শিরোনাম » বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করা হবে – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করা হবে – প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

আওয়াজ অনলাইনঃ সরকারের উন্নয়নের অর্জন ধরে রেখে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করা হবে বলেছেন দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। চলার পথ যত কণ্টকাকীর্ণই হোক না কেন, যেকোনো মূল্যে জাতির পিতার স্বপ্নের উন্নত দেশ গড়ার এ লক্ষ্য অর্জন করতে হবে বলে জানান তিনি।

রোববার সকালে জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ কতৃর্ক বাংলাদেশকে স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশ উত্তোরণের স্বীকৃতি প্রদান আনুষ্ঠানিকভাবে উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী একথা বলেন।

গনভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে অর্থ মন্ত্রণালয়ের অথনৈতিক সম্পর্ক বিভাগ আয়োজিত বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের মূল অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি সংযুক্ত হন প্রধানমন্ত্রী।

এসময় প্রধানমন্ত্রী বলেন, যে অর্জন করেছে বাংলাদেশ তা যেকোনো মূল্যে ধরে রেখে ২০৪১ সালের মধ্যে দেশকে উন্নত দেশে রূপান্তরিত করা হবে।

দেশের মানুষ ইতোমধ্যে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের সুফল পেতে শুরু করেছে বলে জানান তিনি।

স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের যোগ্যতা অর্জনে বাংলাদেশ আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতি পায় ২০২১ সালের ২৪ শে নভেম্বর। এ অর্জন উদযাপনে রোববার সকালে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে অর্থ মন্ত্রণালয়।

শেখ হাসিনা বলেন, আমি জানি স্বাধীনচেতা হলে অনেক বাধা আসে আর দেশকে ভালোবেসে শুধু দেশের মানুষের কথা চিন্তা করে যারা পথ চলে, তাদের পথচলা কখনো সহজ হয় না। অনেক বাধা অতিক্রম করতে হয়। চলার পথ যতই অন্ধকারাচ্ছন্নই হোক না কেন, যত বন্ধুর হোক না কেন, যত কণ্টকাকীর্ণ হোক, সেখানে আমরা থেমে থাকব না। অন্তত আমি এই প্রতিজ্ঞা করছি, থেমে থাকব না। চলার পথ যত কণ্টকাকীর্ণ হোক, যত রক্তক্ষরণ হোক সব পদদলিত করে বাংলাদেশের জনগণের ভাগ্য পরিবর্তনে এগিয়ে যাব, এটাই হচ্ছে আমার প্রতিজ্ঞা।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, মাত্র সাড়ে তিন বছরে বঙ্গবন্ধু দেশকে স্বল্পোন্নত দেশে পরিণত করতে পেরেছিলেন।

উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণে জাতিসংঘের স্বীকৃতি অনেক বড় একটি অর্জন উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী জানান, তৃণমূল পর্যায় থেকে উন্নয়নের মাধ্যমে দেশকে এগিয়ে নেয়াই সরকারের লক্ষ্য।

শেখ হাসিনা বলেন, বীনামূল্যে ঘর দেয়া হচ্ছে কারণ দেশে কাউকে ভূমি ও গৃহহীণ রাখা হবে না। ইতোমধ্যে উন্নয়নশীল দেশে উত্তরণের সুফল পেতে শুরু করেছে দেশের মানুষ। সবার চেষ্টা ছাড়া এ অর্জন সম্ভব হতো না।

সংগৃহীত

Independent TV

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!