হোম » অপরাধ-দুর্নীতি » ১৫ দিনের মধ্যে সাতকানিয়াকে কিশোরগ্যাং মুক্ত করার নির্দেশ শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী 

১৫ দিনের মধ্যে সাতকানিয়াকে কিশোরগ্যাং মুক্ত করার নির্দেশ শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী 

চন্দনাইশের বিজিসি ট্রাস্ট থেকে সাতকানিয়ার কেরানীহাট পর্যন্ত মোটর শোভাযাত্রা ও র‌্যালি শেষে আয়োজিত এক জনসভায় শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা মো. নজরুল ইসলাম চৌধুরী এমপি বলেছেন, আওয়ামী লীগে বেঈমান–মুনাফেকের কোনো দরকার নাই। যারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে লালন করে দল করে তারাই প্রকৃত আওয়ামী লীগ। একটা সময় বঙ্গবন্ধুর আঙুলের ইশারায় পুরো দেশবাসী ঐক্যবদ্ধ হয়েছে। এখন সেই দিন খুব দূরে নয়।
বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আওয়ামী লীগের হাল ধরেছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ তথা পুরো দেশবাসী ঐক্যবদ্ধ হয়ে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাবে। নির্বাচনে যারা নৌকার বিপক্ষে করেছে তাদের আওয়ামী লীগ করার অধিকার নাই। তিনি গত শুক্রবার বিকেলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ৭৫ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে সংসদীয় আসনের চন্দনাইশের বিজিসি ট্রাস্ট থেকে সাতকানিয়ার কেরানীহাট পর্যন্ত মোটর শোভাযাত্রা ও র‌্যালি শেষে আয়োজিত এক জনসভায় এসব কথা বলেন। বক্তব্যে প্রতিমন্ত্রী আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সাতকানিয়াকে কিশোরগ্যাং ও মাদক মুক্ত করার জন্য থানার ওসিকে নির্দেশ দেন।
তা করতে না পারলে সাতকানিয়ায় আপনাদের থাকার দরকার নাই। আপনারা কেন, কি কারণে, কোন উদ্দেশ্য, কার কথায় কিশোরগ্যাং ও মাদক ব্যবসায়ীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছেন না? আগামী ১৫ দিনের মধ্যে কিশোরগ্যাং মুক্ত করতে না পারলে বুঝে নিব পুলিশ বিশেষ কারো এজেন্ডা বাস্তবায়ন করছে। তখন আপনাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। দক্ষিন জেলা আওয়ামীলীগের সাবেক সহ-সভাপতি এমএ সাঈদের সভাপতিত্বে জনসভায় বক্তাব্য দেন
চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য প্রফেসর ডাঃ আ ম ম মিনহাজুর রহমান, আবদুল কৈয়ুম চৌধুরী, চন্দনাইশ উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু আহমদ চৌধুরী জুনু।
চন্দনাইশ পৌরসভার মেয়র মাহাবুবুল আলম খোকা, দোহাজারী পৌরসভার মেয়র মো. লোকমান হাকিম, ইউপি চেয়ারম্যান নাছির উদ্দীন টিপু, ওচমান আলী, আ ফ ম মাহবুবুল হক সিকদার, তাপস কান্তি দত্ত, আবদুল আলীম, আবদুর রহিম চৌধুরী, এড. খোরশেদ বিন ইসহাক, আমিন আহমেদ চৌধুরী রোকন, আবদুল শুক্কুর, খোরশেদ আলম টিটু, চন্দনাইশ উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি আবুল আবুল বশর ভূইয়া, মাষ্টার আহসান ফারুক, যুগ্ম সম্পাদক মাহাবুবুর রহমান চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক সাখাওয়াত হোসেন শিবলী, উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মোহাম্মদ তৌহিদুল আলম, দোহাজারী পৌরসভা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক মোহাম্মদ সোলাইমান, কেঁওচিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মাস্টার মোহাম্মদ ইউনুস, উত্তর সাতকানিয়া যুবলীগের সভাপতি আ স ম ইদ্রিস, সাতকানিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মোহাম্মদ আলী, কেঁওচিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রিপন কান্তি দাস সুজন, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা ছাত্র লীগের সাবেক সহ-সভাপতি আবুল কালাম আজাদ প্রমুখ।
মো.শহীদুল ইসলাম
চন্দনাইশ

Loading

error: Content is protected !!