হোম » প্রধান সংবাদ » ইবিতে প্রগতিশীল শাপলা ফোরামের জ্যোতির্মান স্মরণিকার মোড়ক উম্মোচন

ইবিতে প্রগতিশীল শাপলা ফোরামের জ্যোতির্মান স্মরণিকার মোড়ক উম্মোচন

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে (ইবি)  শাপলা ফোরামের সাধারণ সভা ,   বৃক্ষরোপণ ও জ্যোতির্মান স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে।
আজ মঙ্গলবার (১ অক্টোবর) সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের মহান মুক্তিযুদ্ধ ও    বাঙ্গালি জাতীয়তাবাদে বিশ্বাসী প্রগতিশীল শিক্ষকদের সংগঠন শাপলা ফোরামের আয়োজনে বিশ্ববিদ্যালয়ের শাপলা ফোরামের  সাধারণ সভা, জ্যোতির্মান স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন
  ও বৃক্ষরোপণ কর্মসূচি পালন করে ।
এসময় উপস্থিত ছিলেন,উপাচার্য অধ্যাপক ড. মোঃ হারুন উর রশিদ আসকারী,উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. শাহিনুর রহমানের,কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. সেলিম তোহা,শাপলা ফোরামের সভাপতি অধ্যাপক ড. রেজওয়ানুল ইসলাম,শাপলা ফোরামের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক ড.মাহবুবর রহমান প্রমুখ।
 সাধারন সভা, বৃক্ষরোপন ও জ্যোতির্মান স্বরনিকার মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানে শাপলা ফোরামের সভাপতি প্রফেসর ড. মোঃ রেজওয়ানুল ইসলামের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ভাইস-চ্যান্সেলর  প্রফেসর ড. মোঃ হারুন-উর-রশিদ আসকারী বলেন, শাপলা ফোরাম তিলে তিলে বিশ্ববিদ্যালয়ে একটি অবিচ্ছেদ্য, অবিভাজ্য ও দূর্লংগো সংগঠন হিসাবে আত্মপ্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়কে আন্তর্জাতিক মানে উন্নয়নে কাজে প্রশাসনকে সবধরনের সাহায্য সহযোগীতা করছেন প্রগতিশীল সংগঠন শাপলা ফোরাম। বিশ্ববিদ্যালয়ের যেকোন চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় শাপলা ফোরাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনের পাশে থেকে অগ্রণী ভুমিকা পালন করবেন বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
বিশেষ অতিথির বক্তব্যে প্রো ভাইস-চ্যান্সেলর প্রফেসর ড. মোঃ শাহিনুর রহমান বলেন, মাত্র ১৭ জন শিক্ষক নিয়ে প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন শাপলা ফোরামের যাত্রা শুরু হয়। তারপর হতে ধীরে ধীরে বিভিন্ন প্রগতিশীল কর্মকান্ডের মধ্যে দিয়ে আজ শাপলা ফোরাম বিশ্ববিদ্যালয়ে দৃঢ় অবস্থানে এসে পৌচেছে। বর্তমান শাপলা ফোরাম বিশ্ববিদ্যালয়ের এগিয়ে নেয়ার পথে যেভাবে কর্মকান্ড চালিয়ে যাচ্ছে তাতে বিশ্ববিদ্যালয় অভিষ্ট লক্ষে পৌছানোর পথে শাপলা ফোরাম গুরুত্বপুর্ণ ভুমিকা রাখবে। তিনি বলেন, ভিশন ২০-২১ এবং রুপকল্প-২০৪১ বাস্তবায়নের জন্য প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যেভাবে দক্ষ হাতে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে পাশাপাশি দেশ হতে সকল ধরনের মাদক, সন্ত্রাস, দূর্নীতি ও জঙ্গীবাদ নির্মূলে দৃঢ় পদক্ষেপ গ্রহন করে চলেছে। ঠিক সেভাবে ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের  প্রেক্ষাপটে শাপলা ফোরাম কাজ করে যাবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন।
অপর বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ট্রেজারার প্রফেসর ড. মোঃ সেলিম তোহা ১৫ আগষ্টের বর্বরোচিত নির্মম হত্যাকান্ড ও ২১ আগস্টের যারা দেশের জন্য আত্মত্যাগ করেছেন তাদের বিদ্রেহী আত্মার প্রতি মাগফিরাত কামনা এবং শ্রদ্ধা জ্ঞাপন করেন। তিনি বলেন, ৯০ শতকের দিকে শাপলা ফোরাম এতো সহজ ছিলো না। বিশ্ববিদ্যালয়ে যতগুলো ফোরাম আছে তার মধ্যে শাপলা ফোরাম তাদের প্রগতিশীল কর্মকান্ডের মাধ্যমে শক্তিশালী ফোরাম হিসাবে নিজেদেরকে প্রতিষ্ঠিত করতে সক্ষম হয়েছেন। তিনি আশাবাদ ব্যক্ত করেন ভবিষ্যৎতে প্রগতিশীল কর্মকান্ডের মধ্যে দিয়ে শাপলা ফোরাম বিশ্ববিদ্যালয়ে সংগঠনের অবস্থানকে আরো সুদৃঢ় করবেন।
 সাধারন সভা, বৃক্ষরোপন ও জ্যোর্তিমান স্বরনিকার মোড়ক উন্মোচন অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন শাপলা ফোরামের সাধারন সম্পাদক প্রফেসর ড. মোঃ মাহবুবর রহমান। এর আগে প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন শাপলা ফোরামের উদ্যোগে টিএসসিসি’র বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে সামনের খোলা জায়গায় বিভিন্ন ধরনের গাছের চারা রোপন করা হয়।
বৃক্ষরোপন শেষে বিশ্ববিদ্যালয়ে বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে শাপলা ফোরামের প্রকাশনায় বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এবং বাংলাদেশে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা ও অংশগ্রহণকারী সকল মুক্তিযোদ্ধাদের উৎসর্গ করে জ্যোতির্মান স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন করা হয়।
শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!