হোম » প্রধান সংবাদ » ধুনটে সিগারেট খেতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট স্কুল ছাত্র আইসিইউতে

ধুনটে সিগারেট খেতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট স্কুল ছাত্র আইসিইউতে

এম.এ. রাশেদ (বগুড়া) প্রতিনিধি:বগুড়ার ধুনটে মার্কেটের ছাদে লুকিয়ে সিগারেট খেতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে শাকিল আহম্মেদ (১৪) নামের এক স্কুল ছাত্র আহত হয়ে আইসিইউতে ভর্তি রয়েছে। বুধবার সকালে উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের সোনাহাটা বাজারের একটি মার্কেটের ছাদে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় আহত স্কুল ছাত্র একই ইউনিয়নের সাতবেকী গ্রামের ওয়াহেদ বক্সের ছেলে ও সোনাহাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সাতবেকী গ্রামের ওয়াহেদ বক্সের ছেলে ও সোনাহাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী শাকিল আহম্মেদ, একই গ্রামের রুবেল আহম্মেদের ছেলে সোনাহাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৯ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী শাহ জামাল রাব্বী, জহুরুল ইসলামের ছেলে সোনাহাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ষ্ট শ্রেনীর শিক্ষার্থী সোহেল রানা এবং শাহ জামাল রাব্বীর মামাতো ভাই সারিয়াকান্দি উপজেলার ভেলাবাড়ী গ্রামের পিন্টু মিয়ার ছেলে ও ছাইহাটা উচ্চ বিদ্যালয়ের ৮ম শ্রেনীর শিক্ষার্থী দুলাল মিয়া পরস্পর সহপাঠি। সোনাহাটা বাজারে নান্দিয়ারপাড়া গ্রামের মৃত আব্দুর রহমান ফকিরের ছেলে মোর্শেদ ও ছানার মার্কেট এবং একই গ্রামের আব্দুর রাজ্জাক ফকিরের ছেলে শাহাবুল আলম বাবুর মার্কেট পাশাপাশি নির্মানাধীন।

শাকিল আহম্মেদসহ তারা ৪ সহপাঠি এনজিও গ্রামীণ ব্যাংকের সামনের সিঁড়ি দিয়ে লুকিয়ে সিগারেট খাওয়ার জন্য ছাদে যায়। সেখানে ছাদের পশ্চিম পাশে থাকা বিদ্যুত লাইনের কাছে আসলে অসাবধানতা বসতঃ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে রাজ্জাক স্যানেটারী ও ভ্যারাইটি ষ্টোরের সামনের সড়কে পড়ে যায় শাকিল আহম্মেদ। সেখান থেকে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে মুমুর্ষ অবস্থায় বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল হাসপাতালে নিয়ে যায়। রিপোর্ট লেখা কালীন সময়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্টে আহত শিক্ষার্থী হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

এবিষয়ে ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ ইসমাইল হোসেন জানান, সংবাদ পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। এবং প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মার্কেটের মালিক ও আহত শিক্ষার্থীর সহপাঠিদের থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। আহত শাকিল আহম্মেদ আইসিইউতে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!