হোম » অপরাধ-দুর্নীতি » নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় চাঞ্চল্যকর গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামীসহ দুইজন গ্রেফতার

নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় চাঞ্চল্যকর গণধর্ষণ মামলার প্রধান আসামীসহ দুইজন গ্রেফতার

মোঃ কবির হোসেন, নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
র‌্যাব-১১ এর একটি আভিযানিক দল ৪সেপ্টেম্বর ভোরে টাংগাইল জেলার এলেঙ্গা এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে ফতুল্লা থানার বহুল আলোচিত ও চাঞ্চল্যকর গণধর্ষণ মামলার এজাহার নামীয় প্রধান আসামী মোঃ আব্দুল কাদের শান্ত(১৯) ও তার সহযোগী আবু বক্কর সিদ্দিক শুভ(২৩)কে গ্রেফতার করা হয়।

গ্রেফতারকৃত আসামীদের বিরুদ্ধে ভিকটিমের মা বাদী হয়ে গত ২৯ আগস্ট নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা­ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা দায়ের করেন, যার মামলা নং-৯৪ তাং২৯/০৮/২০১৯।

​র‌্যাব-১১’র মেজর উপ-পরিচালক মিডিয়া অফিসার নাজমুছ সাকিব জানান, ভিকটিম ১৫ বছরের একজন অপ্রাপ্তবয়স্ক বালিকা তার পরিবারের সাথে নারায়ণগঞ্জ জেলার ফতুল্লা থানাধীন রেলষ্টেশন এলাকায় বসবাস করে আসছে।

ভিকটিমের মা একটি প্লাস্টিক কারখানায় কাজ করে। ঘটনার দিন গত ২৮ আগস্ট রাত সাড়ে ৮ঘটিকার সময় সরিষার তেল ক্রয় করার জন্য তার বাসার পার্শবতী মুদি দোকানে যায়। ঐসময় ভিকটিমের পূর্ব পরিচিত মোঃ রাজন তাকে জোরপূর্বক ফতুল্লা রেলষ্টেশনস্থ জোড়াপোল বালুর মাঠের নির্জন ও অন্ধকারাচ্ছন্ন স্থানে নিয়ে যায়। সেখানে নিয়ে রাজন, শুভ, শান্ত ও অজ্ঞাত আরো ২/৩ জন মিলে ভিক্টিমকে পালাক্রমে গণধর্ষণ করে।

ধর্ষনের পর এ ব্যাপারে কাউকে কিছু না বলার জন্য ভিক্টিমকে হুমকি দিয়ে বাড়ী পাঠিয়ে দেয়। ভিকটিমের মা বাড়ীতে এসে বিষয়টি জানার পর ফতুল্লা থানায় গিয়ে মামলা রুজু করে।

বর্ণিত ঘটনার প্রেক্ষিতে র‌্যাব-১১ এর একটি বিশেষ আভিযানিক দল ঘটনার প্রকৃত রহস্য উদঘাটন, জড়িত আসামীদের সনাক্তকরণ ও তাদের গতিবিধি নজরদারী করাসহ উক্ত ঘটনার মূলহোতা রাজনসহ শুভ, শান্ত ও অন্যান্য আসামীদের গ্রেফতার করার লক্ষ্যে বিভিন্ন এলাকায় অভিযান পরিচালনা করে। বেশ কয়েকটি স্থানে বিশেষ অভিযান পরিচালনা করার পর ৪সেপ্টেম্বর ভোরে তাদের গ্রেফতার করে।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!