হোম » অপরাধ-দুর্নীতি » নারায়ণগঞ্জের বন্দরে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এনজিও কর্মী আটক

নারায়ণগঞ্জের বন্দরে প্রবাসীর স্ত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে এনজিও কর্মী আটক

মোঃ কবির হোসেন, নারায়ণগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
রোববার (১ সেপ্টেম্বর) বিকেল সাড়ে ৪টায় নারায়ণগঞ্জের বন্দর শাহীমসজিদ এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। এ ব্যাপারে প্রবাসী স্ত্রী বাদী হয়ে বন্দর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করেছে। যার মামলা নং- ২(৯)১৯।

আটককৃত এনজিও কর্মী হাবিব সিদ্ধিরগঞ্জ থানার বার্মাশীল স্ট্যান্ড এলাকার জয়নাল আবেদীন মিয়ার ছেলে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, ধর্ষণের কবল থেকে রক্ষা পাওয়া গৃহবধূর স্বামী জীবিকার তাগিদে গত ১ বছর পূর্বে সৌদিআরবে পাড়ি জমায়। সে সুবাধে প্রবাসী স্ত্রী তার ২ মেয়েকে নিয়ে বন্দর শাহী মসজিদ এলাকায় একটি বাড়িতে ভাড়াটিয়া হিসেবে বসবাস করে আসচ্ছে। গৃহবধূর স্বামী এনজিও থেকে টাকা উত্তেলন করে প্রবাসে যায়। সে সুবাধে প্রবাসীর স্ত্রীর সাথে সিদিপ এনজিও মাঠকর্মী হাবিবের সাথে পরিচয় হয়। পরিচয়ে সূত্র ধরে হাবিব প্রায় সময় প্রবাসীর স্ত্রীর বাসায় যাতায়েত করত।

এক পর্যায়ে হাবিব প্রবাসী স্ত্রীকে কুপ্রস্তাব দেয়। এতে ২ সন্তানের জননী রাজি না হওয়ায় হাবিব ক্ষিপ্ত হয়ে প্রবাসীর বড় মেয়েকে (১৩) তুলে নিয়ে যাবে বলে হুমকি প্রদান করে। এর ধারাবাহিকতায় গত রোববার বিকেলে হাবিব প্রবাসীর স্ত্রীর বাড়িতে এসে পুনরায় কুপ্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়ার হাবিব আরো বেশি ক্ষিপ্ত হয়ে জোর পূর্বক ভাবে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। হাবিব ধর্ষণে ব্যার্থ হয়ে প্রবাসীর স্ত্রীকে পিঠে কামড় মেরে আহত করে। ওই সময় গৃহবধূ চিৎকার করলে স্থানীয় এলাকাবাসী দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে হাবিবকে গনপিটুনী দিয়ে বন্দর থানা পুলিশে সোর্পদ করে।

এ ব্যাপারে প্রবাসীর স্ত্রী বাদী হয়ে বন্দর থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ সোমবার (২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে ওই মামলায় হাবিবকে আদালতে প্রেরণ করে। মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা এসআই মোহাম্মদ আলী প্রবাসীর স্ত্রীকে উদ্ধার করে একই দিনে ২২ ধারায় আদালতে প্রেরণ করে।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!