হোম » সারাদেশ » শ্যামনগরে বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন

শ্যামনগরে বড় ভাইয়ের হাতে ছোট ভাই খুন

মারুফ বিল্লাহ রুবেল: সাতক্ষীরার শ্যামনগরে ছোট ভাইয়ের বিরুদ্ধে দা দিয়ে কুপিয়ে বড় ভাইকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। আজ রোববার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে শ্যামনগর উপজেলার সোনার মোড় ব্রিজসংলগ্ন মাহমুদপুর এলাকায় আকবর আলী মার্কেটের সামনে এ ঘটনা ঘটে। ৫৫ বছর বয়সী নিহত লোকমান শেখের বাড়ি মাহমুদপুর এলাকায়। তিনি ভাঙাড়ি বেচাকেনা করতেন।
লোকমানের ছেলে শেখ আল-আমিন হোসেন বলেন, ‘আমার বাবা আজকে সোনার মোড় মসজিদে ফজরের নামাজ পড়ে ভাঙাড়ি কিনতে পার্শ্ববর্তী আকবর আলী মার্কেটে যান। সে সময় আমার চাচা মোশারফ হোসেন (৫০) আব্বার পিঠে দা দিয়ে কোপ দেন। আব্বা পেছনে ফিরলে তিনি বুকে কোপ দেন। স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে আমরা আব্বাকে শ্যামনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাই।’
হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক সাকির হোসেন বলেন, ‘ধারালো অস্ত্রের আঘাতে লোকমানের ফুসফুস বের হয়ে গেছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে ঘটনাস্থলেই মারা যান তিনি। এরপর তার মরদেহ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হয়। লোকমানের পিঠসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে আরও আঘাতের চিহ্ন আছে।’
ছোট ভাইয়ের দায়ের কোপে নিহত লোকমান শেখ। লাইনে দাঁড়িয়ে ধাক্কাধাক্কি থেকে মারামারি, যুবক নিহত আল-আমিন বলেন, ‘আমার ভ্যানচালক দাদার সঙ্গে বাবা-মায়ের সম্পর্ক ভালো থাকার কারণে চাচা প্রচণ্ড হিংসা করতেন। এ ছাড়া চাচা মাদকাসক্ত হয়ে পড়ায় এলাকাবাসীর অভিযোগের ভিত্তিতে সম্প্রতি তাকে গালমন্দ করেন আমার বাবা। এসব ঘটনার ধারাবাহিকতায় তিনি আমার বাবাকে কুপিয়ে হত্যা করেছেন।’
স্থানীয় ইউপি সদস্য আইয়ুব আলী জানান, মোশারফ নির্দিষ্ট কোনো কাজ করতেন না। পরিবারের সবার সঙ্গে তার দ্বন্দ্ব ছিল। এর আগে তিনি বাবাকেও মারধর করেন এবং বড় ভাবিকে ধাওয়া করে বাড়ি থেকে তাড়িয়ে দেন। প্রায় দুই বছর আগে বিদেশে কাজ করতে যাওয়া স্ত্রী রেক্সোনার পাঠানো টাকায় সংসার চালান। এ ঘটনায় শ্যামনগর থানার ওসি কাজী ওয়াহিদ মুর্শেদ বলেন, ‘মোশারফকে গ্রেপ্তার করতে পুলিশ অভিযান শুরু করেছে। লোকমানের মরদেহ সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।
শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!