হোম » সারাদেশ » ভালুকায় ককটেল ফাটিয়ে স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি অস্ত্রের মুখে সোনা লুট

ভালুকায় ককটেল ফাটিয়ে স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি অস্ত্রের মুখে সোনা লুট

ভালুকা,ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ– ভালুকায় ককটেল ফাটিয়ে সোনার দোকানের লোকদের অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে প্রায় সব স্বর্ণ ও অলংকার লুট করে নিয়ে গেছে সঙ্ঘবদ্ধ ডাকাদল।এ সময় ডাকাত দলের হামলায় দোকান মালিক অধীর কর্মকার গুরুতর আহত হন।ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার ২০ই জুলাই রাত পৌনে ৯টায় ভালুকা- গফরগাঁও সড়কে বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন প্রদীপ জুয়েলার্সে।খবর পেয়ে মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।দোকান মালিক ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,ঘটনার সময় ৪/৫ জনের একটি সঙ্ঘবদ্ধ সসস্ত্র ডাকাতদল একটি প্রাইভেটকারে এসে প্রদীপ জুয়েলার্সে ডুকে দোকান মালিক অধীর কর্মকার ও তার ভাই সুধীর কর্মকারকে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে প্রায় সব স্বর্ণ ও অলংকার লুট করে নিয়ে যাওয়ার সময় দোকান মালিক অধীর কর্মকারের মাথায় আঘাত করে বেশ কয়েকটি ককটেল ফাটিয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে চলে পালিয়ে যায়।পরে স্থানীয় লোকজন আহত দোকান মালিক অধীর কর্মকারকে উদ্ধার করে ভালুকা ৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করেন।

খবর পেয়ে ভালুকা মডেল থানা পুলিশ সহ পুলিশের বিভিন্ন পর্যাযের কর্মকর্তা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান,পর পর তিনটি ককটেল বিস্ফোরনের কারণে বিকট শব্দে আশপাশ এলাকা ধোঁয়ায় অন্ধাকারে আচ্ছন্ন হয়ে যায়।এসময় উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান আবুল কালাম আজাদ খবর পেয়ে তিনি তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে পরিদর্শন করেন।তিনি জানান,ভালুকা পৌরসদরে সন্ধ্যা রাতে ব্যস্ততম এলাকায় এমন ঘটনা খুবই দুঃখজনক।ভালুকা মডেল থানার ওসি কামাল হোসেন জানান,সংবাদ পেয়ে সাথে সাথেই ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে এবং ঘটনার সাথে জড়িতদের চিহিৃত করে গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে।পুলিশ সূত্রে আরো জানাযায়, ঘটনাস্থল থেকে বিভিন্ন আলামত সংগ্রহ করেছি। সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ঘটনার সাথে জড়িতদের চিহ্নিত করে গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।তাছাড়া বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার লোকজন ঘটনাটির তদন্ত করছেন বলে জানা গেছে।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!