হোম » সারাদেশ » বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পস বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম ও ক্লাস আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পস বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম ও ক্লাস আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু

মোঃ মাসুদ রানা রাশেদ, লালমনিরহাট প্রতিনিধি: লালমনিরহাটে দেশের প্রথম বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পস বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম ও একাডেমিক ক্লাস আনুষ্ঠানিক ভাবে নিজস্ব ক্যাম্পাসে শুরু হয়েছে রোববার (২৬ জুন)। বিশ্ববিদ্যালয়টি ঘোষণা দেবার পর এর কার্যক্রম অস্থায়ী ক্যাম্পাস ঢাকা তেজগাঁও পুরাতন বিমানবন্দর এলাকায় পরিচালিত হয়ে আসছিলো।
রোববার (২৬ জুন) লালমনিরহাট শহরের ০৫কিলোমিটার অদূরে পুরাতন বিমান বন্দরের নব নির্মিত ইমারত ভবনে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পস বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কার্যক্রম ও ক্লাস আনুষ্ঠানিক ভাবে শুরু হয়। একাডেমিক কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পস বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চ্যান্সেলর (ভিসি) এয়ার ভাইস মার্শাল মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম।
প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দিক নির্দেশেনায়, লালমনিরহাট পুরাতন বিমান বন্দর এলাকায়, বিমান বাহিনীর প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল মসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত ২০২০ সালের ১৭ জানুয়ারি স্থায়ী একাডেমিক ভবন ও ক্যাম্পাসের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করেন। লালমনিরহাটের পুরাতন বিমান বন্দর সংলগ্ন হারাটি ও  মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের কয়েকটি মৌজাসহ ৬শত ২০একর জমি বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। ইতিমধ্যে বিমান বাহিনীর নিজস্ব জায়গায় বিশ্ববিদ্যালয়ের জন্য নির্ধারিত জায়গায় একাডেমিক ভবন ও অফিসার্স স্টাফ কোয়ার্টার নির্মাণ সম্পন্ন হয়েছে। নব-নির্মিত ভবনে অস্থায়ী ভাবে একাডেমিক কার্যক্রম ও ক্লাস শুরু হলো আজ থেকে।
এই বিশ্ববিদ্যালয়টি আন্তর্জাতিক মানদন্ডে পরিচালিত হবে, এটি দেশের একমাত্র অ্যাভিয়েশন বিশ্ববিদ্যালয় যেটি   প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লালমনিরহাট জেলার মানুষকে উপহার হিসেবে দিয়েছেন। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান অ্যাভিয়েশন অ্যান্ড অ্যারোস্পস বিশ্ববিদ্যালয়ের ভাইস চেন্সলর এয়ার ভাইস মার্শাল নজরুল ইসলাম বলেন, এই বিশ্ববিদ্যালয়টির কারনে লালমনিরহাট এভিয়েশন সিটিতে পরিণত হবে, এই বিশ্ব বিদ্যালয়ের কারনে দেশ বিদেশ থেকে মেধাবী শিক্ষার্থী লালমনিরহাট আসবেন, এই এলাকার মানুষের অর্থনৈতিক উন্নয়ন হবে।
বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ জানান, এই বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যাভিয়েশন ম্যানেজমেন্ট এমবিএ, এয়ার এক্সিডেন্ট ইনভেষ্টিগেশন (এমএসসি), আন্তর্জাতিক মহাকাশ আইনে এম,এল,এম বিষয়ে স্নাকোত্তর কোর্স চালু করা হয়েছে, আগামীতে (এম,এস,সি) ইন এরোনেটিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং  (এম,এস,সি) ইন স্যাটেলাইট সিস্টেম ইঞ্জিনিয়ারিং, এম এস সি ইন এরো স্পেস কমিউনিকেশন কোর্স চালু করা হবে।
এ বছর ৭হাজার শিক্ষার্থীর মধ্যে ১শত ৫০জন শিক্ষার্থী মেধা তালিকায় ভর্তির সুযোগ পাচ্ছেন। অনার্স প্রথম, দ্বিতীয়, তৃত্বীয় ও চতুর্থ সেমিস্টার পর্যন্ত ক্লাস শুরু হচ্ছে। এই বিশ্ববিদ্যালয় কে ঘিরে লালমনিরহাটের মানুষ দারুন উচ্ছ্বসিত।
শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!