হোম » প্রধান সংবাদ » আদমদীঘির সান্তাহারে রাজাকারের তালিকা সংশোধনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

আদমদীঘির সান্তাহারে রাজাকারের তালিকা সংশোধনের দাবিতে সংবাদ সম্মেলন

গোলাম রাব্বানী দুলাল, আদমদিঘী উপজেলা প্রতিনিধি: বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলা মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক এবং বর্ষিয়ান আওয়ামীলীগ নেতা ও সাবেক গর্ভণর কছিম উদ্দীন আহম্মেদসহ প্রায় ৩০ জন আওয়ামীলীগ নেতা ও মুক্তিযোদ্ধার নাম রাজাকার তালিকায় প্রকাশ হওয়ায় এর প্রতিবাদে বুধবার দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করেছে উপজেলা আওয়ামীলীগ ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা। সান্তাহার আওয়ামীলীগ কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য রাখেন আদমদীঘি উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম খান রাজু।

এ সময় আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মি ও মুক্তিযোদ্ধারা উপস্থিত ছিলেন। লিখিত বক্তব্যে সিরাজুল ইসলাম রাজু বলেন, বর্ষিয়ান আওয়ামীলীগ নেতা ও সাবেক গর্ভণর কছিম উদ্দীন আহম্মেদ মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ছিলেন। তিনি পর পর ২ বার সাংসদ নির্বাচিত হয়েছিলেন এবং জয়পুরহাট জেলার গর্ভণর ছিলেন। তিনি দীর্ঘ ৪৪ বছর আওয়ামীলীগের আদমদীঘি উপজেলা শাখার সভাপতি ছিলেন । তাঁর নেতৃত্তে এ এলাকার মানুষ স্বাধীনতা যুদ্ধে সংগঠিত হয়েছিলেন।

তিনি ছাড়া সদ্য প্রকাশিত রাজাকারের তালিকায় এই উপজেলার আওয়ামীলীগের যে সকল নেতা ও মুক্তিযোদ্ধাদের নাম প্রকাশ করা হয়েছে তাঁরা সকলেই আওয়ামীলীগের নিবেদিন প্রাণ । তাঁদের নেতৃত্বে এ এলাকার মানুষ মুক্তিযুদ্ধে অনুপ্রানীত হয়েছিল । এ সকল নন্দিত মানুষের নাম রাজাকারের তালিকায় প্রকাশিত হওয়ায় সমগ্র উপজেলার মানুষ চরমভাবে ক্ষুদ্ধ ও অপমানিত হয়েছে । সংবাদ সম্মেলনে রাজাকারদের তালিকা দ্রুত সংশোধন করে এ তালিকা তৈরী কাজের সাথে সং¯িøদের শাস্তি দাবি করা হয়।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তালিকা সংশোধনের জন্য নির্দেশ দিয়েছেন আপনারা তালিকা সংশোধন না বাতিল চান এমন প্রশ্নের জবাবে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম খান বলেন, প্রধানমন্ত্রী যে নির্দেশ দিয়েছেন আমরা তা সমর্থন করি। তালিকা থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের নাম প্রত্যাহার করে একটি সঠিক রাজাকার তালিকা তৈরীর করার দাবি করছি আমরা। একই সাথে এই তালিকা তৈরীর সাথে কোন ষড়যন্ত্র থাকলে তা উদঘাটন করে জড়িতদের শাস্তি দাবি জানাচ্ছি।

সম্মেলনে মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক ও সান্তাহার পৌরসভার সাবেক মেয়র গোলাম মোরশেদ, আওয়ামীলীগ নেতা আবুল কাসেম, আবু রেজা খান, সাজেদুল ইসলাম, নিসরুল হামিদ, মাহামুদুর রহমান, শ্রমিকলীগ নেতা রাশেদুল ইসলামসহ প্রমূখ উপস্থিত ছিলেন। পরে আদমদীঘি উপজেলা নির্বাহী অফিসার বরাবর স্মারকলিপি প্রদান করা হয়। সন্ধ্যায় স্বাধীনতা মঞ্চের অবস্থান ধর্মঘট থেকে পরবর্তি কর্মসূচী ঘোষনা করা হবে বলে জানানো হয়েছে ।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!