হোম » প্রধান সংবাদ » আমতলী কয়রা বাহিনীর প্রধান গ্রেফতার ও চোরাই সিগারেট উদ্ধার।

আমতলী কয়রা বাহিনীর প্রধান গ্রেফতার ও চোরাই সিগারেট উদ্ধার।

বরগুনা প্রতিনিধি: বরগুনার আমতলী উপজেলার চোর চক্রের হোতা কয়রা বাহিনী প্রধান মোঃ নাঈম মৃধাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার রাতে আমতলী পৌর শহরের আখড়াবাড়ী এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়।জানাগেছে, গত দুই মাস ধরে আমতলী উপজেলা ও পৌর শহরের বিভিন্ন এলাকায় ঘরের কয়রা ভেঙ্গে চুরির ঘটনা ঘটেছে। দীর্ঘদিন ধরে পুলিশ তাদের গ্রেফতারের চেষ্টা চালায়। গত সোমবার রাতে বিট্রিশ টোবাকো কোম্পানীর আমতলী এজেন্সি মেসার্স হাজী এন্ড সন্সের গুদাম থেকে ২ লক্ষ ৬৭ হাজার টাকার  বিভিন্ন ব্যান্ডের সিগারেট জানালা ভেঙ্গে চুরি কওে ওই চোর চক্র।
ওই সিগারেটের কিছু অংশ পৌর শহরের সদর রোডের মনোজ ষ্টোরে স্বল্প মুল্যে বিক্রি করতে আসে চোর চক্রের মুল হোতা কয়রা বাহিনীর প্রধান নাঈম মৃধা। এতে সন্দেহ হয় মৃনালের। পরে কৌশলে মনোজ ষ্টোরের মালিক মৃনাল সিগারেট কোম্পানীর লোকজনকে খবর দেয়। তারা গিয়ে নাঈমকে সিগারেটসহ আটক করে পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ গিয়ে নাঈমকে আখড়াবাড়ী এলাকা থেকে গ্রেফতার করে। পরে নাঈমের তথ্য মতে মিঠাবাজার এলাকার ইউসুফ আলী হাওলাদারের পুত্র অলির বাসায় অভিযান চালিয়ে ১২ হাজার টাকার সিগারেট উদ্ধার করেন। কিন্তু চোর অলিকে গ্রেফতার করতে সক্ষম হয়নি। এ ঘটনায়  টোবাকো কোম্পানীর সেলসম্যান নুরে আলম বাদী হয়ে আমতলী থানায় নাঈম ও অলিকে আসামী করে মামলা দায়ের করেন।
বুধবার পুলিশ চোর চক্রের মুল হোতা নাঈম মৃধাকে আমতলী সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে সোপর্দ করেছে। আদালতের বিচারক মোঃ সাকিব হোসেন তাকে জেল হাজতে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।আমতলী থানার ওসি মোঃ আবুল বাশার বলেন, চোর চক্রের মুল হোতা নাঈমকে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। তিনি আরো বলেন, চোর নাঈমের তথ্য মতে বিশ হাজার টাকা সিগারেট উদ্ধার করা হয়েছে। নাঈমকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আদালতে পাচ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।
শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!