হোম » প্রধান সংবাদ » ধুনটে গবাদি চিকিৎসকে কুপিয়ে হত্যা করল যুবলীগ নেতা

ধুনটে গবাদি চিকিৎসকে কুপিয়ে হত্যা করল যুবলীগ নেতা

এম.এ রাশেদ (বগুড়া) প্রতিনিধি. বগুড়ার ধুনটে আব্দুস সবুর (৩৬) নামে এক গবাদি চিকিৎসককে কুপিয়ে হত্যা করেছে কামরুল ইসলাম নামে এক মাদক ব্যবসায়ী বহিস্কৃত যুবলীগ নেতা ও তার লোকজন। বুধবার দুপুর ১টায় উপজেলার নিমগাছী ইউনিয়নের পশ্চিম নান্দিয়ারপাড়া এলাকায় এঘটনা ঘটে।  স্থানীয়সূত্রে জানাগেছে, ধুনট উপজেলা যুবলীগের সদস্য ও নান্দিয়াপাড়া এলাকার রহিম বক্সের ছেলে গবাদি চিকিৎসক আব্দুস সবুরের সাথে দির্ঘদীন ধরে বাড়ীর সীমানা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিলো একই গ্রামের জনাব আলীর ছেলে নিমগাছী ইউনিয়ন যুবলীগের বহিস্কৃত সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইমলামের সাথে।

 

বুধবার দুপুর ১টায় পশ্চিম নান্দিয়ার পাড়া গ্রামের সেকেন্দারের ছেলে শাহাদৎ হোসেন গবাদি চিকিৎসক আব্দুস সবুর কে মোবাইল ফোনে তার গরুর অসুখের কথা জানায়। পরে আব্দুস সবুর শাহাদতের গরু চিকিৎসা করার জন্য মোটরসাইকেল নিয়ে তার বাড়িতে যাওয়ার উদ্দ্যেশে রওনা হয়।

পথিমধ্যে মৃত. মন্তাজ উদ্দিন সরকারের ছেলে শহিদুল ইসলামের পরিত্যাক্ত বাড়ির উঠানে পৌঁছা মাত্রই পথরোধ করে বহিস্কৃত যুবলীগ নেতা কামরুল ইসলাম (৩৫), একই গ্রামের সামস্ উদ্দিনের ছেলে সবুজ মিয়া (৩৪), শফিকুল ইসলামের ছেলে সাগর মিয়া (১৮) ও সুরুজ মিয়ার ছেলে বিপুল হোসেন (২৮) সহ আরো ৪/৫জন অজ্ঞাত ব্যাক্তি ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে আব্দুস সবুরকে হত্যা করে লাশ ফেলে রেখে পালিয়ে যায়। পরে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে প্রেরণ করে। রিপোর্ট লেখাকালীন থানায় কোন মামলা দায়ের হয় নাই তবে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে। অপরাধীদের গ্রেফতার করার জন্য চেষ্টা চলছে।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!