হোম » প্রধান সংবাদ » ভৈরবে সহকারি প্রকৌশলীর বদলীতে জনমনে স্বস্থি

ভৈরবে সহকারি প্রকৌশলীর বদলীতে জনমনে স্বস্থি

এম আর ওয়াসিম, ভৈরব (কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি: অবশেষে কিশোরগঞ্জের ভৈরবের শিমুল কান্দি বিদ্যুৎ অফিসের আবাসিক সহকারি প্রকৌশলী মফিজ উদ্দিন খান এর বদলীর আদেশ দিয়েছেন উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ। নানা অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসেবে দুর্নীতিবাজ সহকারি প্রকৌশলী মফিজ উদ্দিন খানকে ঢাকা রেঞ্জের বাইরে সিলেট বিভাগের মৌলভী বাজারের কুলাউড়ায় বদলী করা হয়েছে। বিভিন্ন গণমাধ্যমে দুর্নীতিবাজ সহকারি প্রকৌশলী মফিজ উদ্দিন খানের দুর্নীতি নিয়ে সংবাদ প্রকাশিত হয় ,এসব খবরের পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত কমিটি গঠন করেন বিদ্যুৎ বিভাগের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষ। এছাড়াও গোয়েন্দা সংস্থার প্রতিবেদনেও মফিজ উদ্দিনের দুর্নীতির প্রমাণ মেলে বলে নির্ভর সূত্রে জানা যায়। পরবর্তীতে অবৈধ উপায়ে অর্জিত মফিজ উদ্দিনের সম্পদের হিসাব চেয়ে এবং তার দুর্নীতির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন দুর্নীতি দমন কমিশন দুদক। পরে অভিযোগের সত্যতা পাওয়ায় তার বিরুদ্ধে শাস্তিমূলক এই ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে বলে জানায় সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ।

এদিকে মফিজ উদ্দিন খান এর বদলীর খবরে স্বস্থি ফিরেছে এলাকাবাসীর মনে। বদলীর খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়লে শিমুলকান্দি ও শ্রী-নগর দুটি ইউনিয়নের কয়েকটি গ্রামের কয়েকশ বিদ্যুৎ গ্রাহক সন্তোষ প্রকাশ করে এলাকায় মিষ্টি বিতরণ করেছেন। এবিষয়ে শ্রী-নগর ইউপি চেয়ারম্যান সার্জেন্ট (অবঃ) তাহের জানান, মফিজ উদ্দিন খানের বদলীর খবরে ইউনিয়নের শত শত গ্রাহক মিষ্টি বিতরন করেছেন, আনন্দ প্রকাশ করেছেন । তার মতো দুর্নীতিবাজ এমন প্রকৌশলী যেন আমাদের ভৈরবে আর না আসে । প্রসঙ্গত, ভৈরব উপজেলার শিমুলকান্দি বিদ্যুৎ অফিসের প্রধান কর্মকর্তা সহকারি প্রকৌশলী মফিজ উদ্দিন খান যোগদানের পর থেকেই তার নেতৃত্বে
অফিসের অন্যান্য কর্মচারিরা বিভিন্ন অনিয়ম আর দুর্নীতিতে জড়িয়ে পড়েন। আর তাদের এসব কর্মকান্ডে বিপাকে পড়েন ওই বিদ্যুৎ অফিসের  আওতাভুক্ত উপজেলার ছয়টি ইউনিয়নের প্রায় ৮হাজার আবাসিক বিদ্যুৎ গ্রাহকসহ আরো দুইশতাধিক সেচ পাম্প ব্যবহাকারি গ্রাহক।

তবে বিভিন্ন সময়ে নানা অভিযোগে একাধীকবার বদলি হয়েও কোনো এক অদৃশ্য কারণে বার বার একই অফিসে ফিরে এসে বিগত এক যুগ ধরে এসব অনিয়মের ধারাবাহিকতা ধরে রাখেন অফিসটির কর্মকর্তা মফিজ উদ্দিন খান। প্রতিকার না পেয়ে মফিজ উদ্দিন খানের অপসারনের দাবিতে ঝাড়ু– মিছিল, মানব বন্ধন ও সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ কর্মসূচী পালন করেন ভুক্তভোগী গ্রাহকরা। পরে মফিজ উদ্দিন খানের দুর্নীতি ও অনিয়মের বিষয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে একাধিকবার সংবাদ প্রচার হলে উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের নির্দেশে ভৈরব বিদ্যুৎ অফিসের নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ শফিকুল ইসলাম কে আহবায়ক করে ৩সদস্য বিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয় ।

কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন, ময়মনসিংহের সিনিয়র সহকারি পরিচালক মোঃ শাকিব হোসেন ও কিশোরগঞ্জের উপ-বিভাগীয় প্রকৌশলী মেহেদী হাসান সুমন। এ বিষয়ে ভৈরব বিদ্যুৎ বিভাগের আবাসিক নির্বাহী প্রকৌশলী মোঃ শফিকুল ইসলাম শিমুলকান্দি আবাসিক সহকারি প্রকৌশলীর বদলীর বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বাংলাদেশ বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ডের এক আদেশের ভিত্তিতে তাকে সিলেট বিভাগের মৌলভী বাজার জেলায় বদলী করা হয়েছে। অচিরেই শিমুলকান্দি আবাসিক বিদ্যুৎ অফিসে ওই পদে অন্য ১জন যোগদান করবেন ।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!