হোম » প্রধান সংবাদ » ছেলের বাড়িতে বিয়ের দাবীতে অনশনে ৪ মাসের অন্তসত্তা প্রেমিকা

ছেলের বাড়িতে বিয়ের দাবীতে অনশনে ৪ মাসের অন্তসত্তা প্রেমিকা

মোঃ জাহেদ বিন আল মাসুদ, পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি:   বিয়ের দাবীতে প্রেমিকের বাড়িতে ৩ দিন ধরে অনশন করছেন প্রেমিকা ৪ মাসের অন্তসত্তা শানোয়ারা বেগম (১৪)। ওই ঘটনার দিন থেকে বাড়ি থেকে উদ্ধাও হয়েছেন প্রেমিক মোঃ মফিজার রহমান (২৪)।পঞ্চগড় সদর উপজেলার সাতমেড়া ইউনিয়নের লই পাড়া এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। শানোয়ারা বেগম জাবুড়ি দুয়ার গ্রামের মোঃ সামছুল হকের বড় মেয়ে। দশমাইল দ্বিমূখি উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী। লই পাড়া এলাকার মোঃ জয়নাল আলীর ছেলে মফিজার রহমান।সরজমিনে গিয়ে জানা যায়, জাবুড়ি দুয়ার এলাকা থেকে প্রতিদিন লই পাড়া হয়ে মফিজার এর বাড়ির সামনের রাস্তা দিয়ে স্কুলে যেত শানোয়ারা বেগম।

 

এ ভাবে স্কুলে যাওয়ার সময় প্রতিনিয়ত তার সাথে দেখা ও কথা বলার মধ্যে প্রেমের সর্ম্পক তৈরি হয় মফিজারের আর এ ভাবে দীর্ঘ দেড় বছর। দুই জনের বাড়ি পাশাপাশি গ্রাম হওয়ায় রাতের অন্ধকারে শানোয়ারা বেগমের বাড়িতে যাওয়া আশা করত যার ফলে ৪ মাসের অন্তসত্তা সে। এদিকে মফিজার রহমান প্রেমিকার অন্তসত্তার খবর পেয়ে রাতারাতি পরিবারের সহায়তায় তেতুলিয়া উপজেলায় বিয়ে করে। বিয়ের খবর পেয়ে প্রেমিকা শানোয়ারা নিরুপায় হয়ে ছেলের বাড়িতে গত মঙ্গলবার সকান ৭টার সময় এখন পর্যন্ত মফিজার এর বাড়িতে অনশনে। শানোয়ারা সাথে কথা বললে সে জানায়, মফিজার আমাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে আমার জীবনকে ধংস করেছে আমি তাকে ছাড়া অন্য কোথাও বিয়ে করবো না।এসময় শানোয়ারা তার মায়ের সাথে যোগাযোগ করলে তিনি জানান, আমার মেয়ে প্রতিদিন স্কুলে যায় । এক দিন রাতে বাড়ির বাইরে তাকে একটি ছেলের সাথে কথা বলতে দেখলে ছেলেটি পালিয়ে যায়। কিছু দিন পর পাশের বাড়ির লোকজন আমাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বলেন তোমার মেয়ের শারীরিক অবস্থা পরির্বতন হচ্ছে কেন কথা শুনে আমার মনে প্রশ্ন জাগে তখন থেকে তাকে পঞ্চগড়ে ডায়গনষ্টিক সেন্টারে নিয়ে ম্যাডিক্যাল পরীক্ষার মাধ্যমে ধরা পড়ে সে ৪ মাসের অন্তসত্তা।   এদিকে ঘটনার পরে স্থানীয় ইউপি সদস্য মোঃ আশরাফুল সাথে ফোনে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন এব্যাপারে আমি কোন প্রকার প্রদক্ষেপ নিতে পারবো না পরবর্তিত্বে সাতমেড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সাথে ফোনে যোগাযোগ করলে বন্ধ পাওয়া যায়।

শেয়ার করুন আপনার পছন্দের সোশ্যাল মিডিয়ায়
error: Content is protected !!