হোম » শিক্ষা » সংস্কৃতি, সৃজনশীলতা ও গণজাগরণের উর্বরক্ষেত্র মতিহার: রবি উপাচার্য শাহ্ আজম

সংস্কৃতি, সৃজনশীলতা ও গণজাগরণের উর্বরক্ষেত্র মতিহার: রবি উপাচার্য শাহ্ আজম

হাবিবুর রহমান: রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্ আজম বলেছেন সকল স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে মতিহারের অবদান বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাসের অবিচ্ছেদ্য অংশ হয়ে রয়েছে। ৬৯’এর গণঅভ্যুত্থান থেকে ৭১ এর স্বাধীনতা যুদ্ধ এবং আশির দশকে স্বৈরাচার বিরোধী আন্দোলনে শিক্ষক -শিক্ষার্থীদের রক্তে রঞ্জিত হয়েছে মতিহারের সবুজ চত্ত্বর। সংস্কৃতি, সৃজনশীলতা ও গণজাগরণের উর্বরক্ষেত্র মতিহার।
গতকাল রাজধানীর তেজগাঁও কলেজের প্রিন্সিপাল আব্দুর রশীদ অডিটোরিয়ামে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় প্রাক্তনীদের সংগঠন ‘ভালোবাসার মতিহার’ এর প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষ্যে আয়োজিত “ভালোবাসায় মতিহার দেখা হবে বারবার” শীর্ষক গুণীজন সম্মাননা অনুষ্ঠানে সম্মানিত অতিথির বক্তব্যে এসব কথা বলেন রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ শাহ্ আজম।
তিনি আরও বলেন, একক ভাবে কোন উন্নয়ন হয় না, উন্নয়ন একটি সামষ্টিক ধারণা। ব্যক্তিগত উন্নয়ন, সামাজিক উন্নয়ন কিংবা রাষ্ট্রীয় উন্নয়ন সকল ক্ষেত্রে আমাদের ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে। আমাদের ভালোবাসার রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস, যা মতিহার নামে খ্যাত, সেই প্রীতিময় স্মৃতিময় মতিহারের নামকে ধারণ করে এর প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের যে সম্মেলনটি হচ্ছে, তা একদিকে আমাদের মধ্যে ঐক্য-ভাতৃত্ব যেমন তৈরি করছে, অন্যদিকে তা আমাদের সামনে অগ্রসর হবার প্রেরণাও সঞ্চার করছে। অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ের এ্যালামনাই সংগঠনকে দেখি, তারা ভেতরে ভেতরে একটু দুঃখবোধ করে, এই ভেবে যে, আমরা বোধহয় অনেকটা পিছিয়ে পড়েছি।
আমাদের রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তনীদের অনেক সংগঠন রয়েছে,  আজকে ভালোবাসার  মতিহারের এই অনুষ্ঠান থেকে আমি আহ্বান জানাতে চাই, আমরা মতিহারের যারা প্রাক্তনী আছি তাদের  প্রত্যেকের কাছেই এই আহবান, আমাদের যেন একটিমাত্র প্ল্যাটফর্ম থাকে।  একটি সংগঠনের মধ্যে দিয়ে আমরা সকলে মিলে একসঙ্গে আনন্দ প্রকাশ করতে চাই, মতিহারের সাংস্কৃতিক ধারাকে তুলে ধরতে চাই।
বর্তমানে যারা এ বিশ্ববিদ্যালয়ের  শিক্ষক-শিক্ষার্থী রয়েছি তাদেরও এর সাথে সংযুক্ত হবার সুযোগ তৈরি করতে হবে। উপাচার্য ড. শাহ্ আজম অনুষ্ঠানে আগত অতিথিদের রবীন্দ্র বিশ্ববিদ্যালয়ে আমন্ত্রণ জানান। অনুষ্ঠানে রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, শিক্ষার্থীসহ প্রাক্তনীগণ উপস্থিত ছিলেন।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন  ‘ভালোবাসার মতিহার’ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় এক্স স্টুডেন্টস ইউনিটির সভাপতি জি এম মো. শামসুল হুদা। পরে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক পরিবেশনা অনুষ্ঠিত হয়।

Loading

error: Content is protected !!