হোম » শিক্ষা » সরিষাবাড়ীতে অক্সিজেনের অভাবে স্কুলের ২৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ্য

সরিষাবাড়ীতে অক্সিজেনের অভাবে স্কুলের ২৩ শিক্ষার্থী অসুস্থ্য

সরিষাবাড়ী (জামালপুর) প্রতিনিধি: জামালপুরের সরিষাবাড়ীতে অক্সিজেনের অভাবে এক স্কুলের অষ্টম ও নবম শ্রেণির প্রায় ২৩জন শিক্ষার্থী অসুস্থ্য হয়েছে বলে জানাগেছে।

এদের মধ্যে ১০জন শিক্ষার্থী সরিষাবাড়ী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। অন্য শিক্ষার্থীরা স্থানীয় ভাবে চিকিৎসা নেন। রবিবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাত ৯টার দিকে উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের চাইল্ড কেয়ার একাডেমিক স্কুলে ক্লাশ চলাকালীন সময়ে এ ঘটনা ঘটে।

শিক্ষার্থীদের সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার পোগলদিঘা ইউনিয়নের বগারপাড় এলাকার চাইল্ড কেয়ার একাডেমিক স্কুলে ক্লাশ চলাকালীন সময়ের (বিকেল
চারটা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত) শেষদিকে অতিরিক্ত গরমে অতিষ্ঠ হয়ে একজন শিক্ষার্থী পানি পান করতে গিয়ে হঠাৎ শ্বাসকষ্ট দেখা দেয়। এরপর একে একে
প্রায় ২৩/২৪ জন শিক্ষার্থী একইভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েন।

গুরুতর অসুস্থ পোগলদিঘা ইউনিয়নের বগারপাড় এলাকার মেঘলা, তমা, তর্জনী, চৈতি, আশা, নাদিয়া, স্বর্ণা, লাবণ্য, জান্নাতুন ফেরদৌস, তানিয়াকে
সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

অসুস্থ শিক্ষার্থী তর্জনীর পিতা আমিনুল ইসলাম সংবাদমাধ্যমকে বলেন, আমার মেয়েটা ভালোভাবেই বিকেলে কোচিং সেন্টারে গিয়েছিলো। পরে রাত সাড়ে ৯টায় শুনতে পান তার মেয়ে অসুস্থ।

পরে তাকে নিয়ে হাসপাতালে ছুটে আসেন। এভাবে আরও অনেক শিক্ষার্থীই অসুস্থ হয়েছেন। তবে অনেকে হাসপাতালে আসেননি বলেও জানান তিনি।
চাইল্ড কেয়ার একাডেমিক স্কুলের প্রতিষ্ঠাতা পরিচালক কামরুজ্জামান লিটন বলেন, কোচিং ছুটির কিছুক্ষণ আগে কিছু বুঝে ওঠার আগেই হঠাৎ করেই কয়েকজন শিক্ষার্থী অসুস্থ হয়ে পড়েন।

পরে তাদের দ্রুত উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসার জন্য নেয়াহয়। সকল শিক্ষার্থী সুস্থ্য আছে বলে জানান।

সরিষাবাড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা (টিএইচও) ডাঃ বদরুল আমিন বলেন, যখন অনেক মানুষ একসঙ্গে কোনো বন্ধ ঘরে অনেকক্ষণ অবস্থান করে তখন ওই ঘরে অক্সিজেনের ঘাটতি হয়। যেটাকে মেডিকেল সায়েন্সে হাইপোক্সিয়া বলা হয়ে থাকে। এর কারণে একজনের দেখাদেখি ওই ঘরে থাকা প্রত্যেকে এটাতে আক্রান্ত হয়।

প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে এরা সকলে এই ভাবেই আক্রান্ত হয়েছেন। তবে এটা নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার কিছু নেই। তাদের সবাইকে রাতে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

Loading

error: Content is protected !!