আইন অমান্য করে জবির পোগজ স্কুলে ট্রেজারের আত্মীয়ের বিয়ে

পারভেজ হাসান, জবি প্রতিনিধি: অনুষ্ঠান করার নিয়ম না থাকা সত্বেও জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের (জবি) অন্তর্ভুক্ত পোগজ স্কুল প্রাঙ্গণে বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক কামাল উদ্দিন আহমেদের অনুমতিতে তার আত্মীয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়েছে।

উক্ত বিয়েতে দ্বায়িত্বরত হরেন নন্দীকে এ বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করলে তিনি জানান,আমি পোগোজ স্কুলের কমিটিতে অভিভাবক হিসাবে আছি।তাছাড়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার কামালউদ্দিন পোগোজ স্কুলের গভার্নিং বড়ির সভাপতি ও পোগোজ স্কুলের প্রধান শিক্ষকের অনুমতি নিয়েই সব করা হচ্ছে।এছাড়া ট্রেজারার স্যার আমার অনেক পুরোনো আত্নীয় তিনি সব জানেন।

এছাড়া ট্রাজারার ব্যতিত বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসন এ বিষয়ে অবগত কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন রাজনৈতিক ভাবে উপাচার্য স্যার যখন যুবলীগের দ্বায়িত্বে ছিলেন তার সাথে আমি রাজনীতি করেছি সে আমার বড় ভাই আমি তার ছোট ভাই।কিন্তু উনাকে বলা হয় নি।

পোগোজ স্কুলের প্রধান শিক্ষককে জানতে চাইলে তিনি বলেন,আসলে আমরা তো ভাড়া দিই না।আমাদের গভার্নিং বডির একজন সদস্যের ভাতিজার বিয়ে।আমাদের মাননীয় ট্রেজারার স্যাসের অনুমতি নিয়ে সব করা হচ্ছে।এবং ট্রেজারার স্যার ও অনুষ্ঠানে আসবে।

উক্ত বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক ড.মোস্তফা কামাল বলেন, আমি এই বিষয় কিছুই জানিনা।এখন তো বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিতরে কোন প্রকার অনুষ্ঠান হবার কোন নিয়ম নেই।

কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের ট্রেজারার অধ্যাপক ড.কামালউদ্দীনকে এ বিষয়ে জানার জন্য একাধিকবার ফোন দেওয়ার পরও তিনি সাংবাদিকের ফোন রিসিভ করেননি।