কবি শাহজাহান সিরাজ সবুজ- এর কবিতা ”মনুষ্যত্বের জীবন্ত জীবাশ্ম”

মনুষ্যত্বের জীবন্ত জীবাশ্ম
[শাহজাহান সিরাজ সবুজ] 
এই শহরে, ওই শহরে কিংবা গ্রাম-গঞ্জে,
যতো আছে সহায় সম্বলহীন মা,
আমার দৃষ্টিতে তারাও মহীয়সী নারী।
দুধের শিশুকে কোলে নিয়ে,
ভাতের জোগাড়ে বেড়িয়ে পড়ে পথে।
পাথর ভাঙা-মাটিকাটা কিংবা গৃহকর্মী,
সকল শ্রমেই সাবলীল এ সকল মা।
সন্তান আর সংসারের প্রয়োজনে,
দিনরাত খেটে শরীর হাড্ডিসার।
এতো খেটেও ঘরে-বাইরে,
তাদের ভাগ্যে জোটে শুধুই অসম্মান।
হায়রে নিয়তি,
এ যেনো মনুষত্বের জীবন্ত জীবাশ্ম।
এদিকে রাজবস্ত্র-অলংকারে সজ্জিত
কতিপয় অভিলাষী মায়ের,
বিত্তের অহংকারে মাটিতে পড়েনা পা।
এইসব অভিলাষী, দাম্ভিক মায়েরা,
ওইসব মহীয়সী মাকে করে তুচ্ছজ্ঞান।
যদি একদিন কাজে না আসে গৃহকর্মী,
তখন দেখা যায়, তাদের মহা দুর্গতি।
ওহে বিত্তবানরা শোন মনো দিয়া,
মেহনতী এইসব মা-বোনেরা,
সামান্য শ্রমিক হলেও সামান্য নয়। 
তাদেরও শ্রমে- ঘামে-রক্তে- অশ্রুতে 
কিংবা অঙ্গহানি, জীবন বিলিয়ে,
গড়ে উঠেছে সভ্যতা।
তাই সম্মান যদি করতে না পারো,
করোনা তাদের অসম্মান।