ভার্চুয়াল নয়, তারকাদের উপস্থিতিতেই হবে অস্কার

আওয়াজ অনলাইন : কভিড-১৯ মহামারীকালে অস্কারের আসর কীভাবে বসবে তা নিয়ে চলচ্চিত্র অনুরাগীদের আগ্রহ রয়েছে। সম্প্রতি অস্কার কর্তৃপক্ষ নিশ্চিত করেছে যে অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসের চূড়ান্ত আসরটি ভার্চুয়াল হবে না। অ্যাকাডেমির একজন প্রতিনিধি ভ্যারাইটিকে বলেছেন অস্কার সংশ্লিষ্টদের শারীরিক উপস্থিতিতে অনুষ্ঠিত হবে।

অ্যাকাডেমি অব মোশন আর্টস অ্যান্ড সায়েন্সেস অস্কার অনুষ্ঠান প্রচারের তারিখ নির্ধারণ করেছে ২০২১ সালের ২৫ এপ্রিল। মহামারীর কারণেই কিছুটা পিছিয়ে গেছে এ আয়োজন। পর্যবেক্ষকরা বলছেন, অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠান পিছিয়ে দিয়ে তার আগে অ্যাকাডেমি সিনেমা হলে স্বাভাবিক পরিবেশ ফেরা দেখতে চাইছে। যাতে অস্কারে অনেক বেশি ছবি প্রতিযোগিতা করতে পারে। এছাড়া এবারের অস্কার পিছিয়ে দেয়ার আরো একটি কারণ আছে। সেটি হলো আয়োজকরা অস্কারকে স্বাভাবিক রীতিতেই আয়োজন করতে চাইছেন। যেকোনো মূল্যে তারা ভার্চুয়াল আয়োজন এড়াতে চান।

অ্যাকাডেমি এখন অনুষ্ঠান ঐতিহ্যবাহী রীতিতেই আয়োজনের ব্যাপারে গুরুত্ব দিচ্ছে। এখন দেখার বিষয় কীভাবে তারা লস অ্যাঞ্জেলেসের ডলবি থিয়েটারে অনুষ্ঠানের আয়োজন করে।

লস অ্যাঞ্জেলেসের ডলবি থিয়েটারে আসন আছে ৩ হাজার ৪০০টি। কিন্তু এবার ভেতরে কতজন মানুষকে আসন দেয়া হবে তা এখনো জানানো হয়নি। ধারণা করা হচ্ছে মহামারীর কারণে অবশ্যই অতিথি সংখ্যা কমে আসবে। অ্যাকাডেমি কর্তৃপক্ষ এ বিষয়ে পরিকল্পনা করতে সম্প্রতি ডলবি থিয়েটার পরিদর্শন করেছেন। অনুষ্ঠানে কীভাবে স্বাস্থ্যবিধি মানা হবে সে বিষয়ে এখনো কিছু জানানো হয়নি।

২০২১ সালের অস্কারের আসর বসবে ২৫ এপ্রিল। অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডসের জন্য প্রতিযোগিদের শর্টলিস্ট প্রকাশ করা হবে ৯ ফেব্রুয়ারি এবং মনোনয়ন ঘোষিত হবে ১৫ মার্চ। তবে একটি প্রশ্ন উঠছে, যারা মনোনয়ন পাবেন তাদের কতজন সশরীরে অনুষ্ঠানে আসতে রাজি হবেন। যেমন অ্যান্থনি হপকিন্সের বয়স এখন ৮২। সোফিয়া লরেনের ৮৮। এ দুজন যদি মনোনয়ন পান তাহলে তাদের সশরীরে হাজির হওয়াটা কতটা সম্ভব হবে তা নিয়ে সংশয় রয়েছে।
সূত্র: ভ্যারাইটি। /এইচ.