সুনামগঞ্জের ধর্মপাশা ও দিরাইয়ে জেলা প্রশাসনের গৃহনির্মাণ কাজ পরিদর্শন

আল-হেলাল,সুনামগঞ্জ : আশ্রয়ণের অধিকার,শেখ হাসিনার উপহার এই কর্মসুচির অংশ হিসেবে সুনামগঞ্জ জেলায় ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য গৃহনির্মাণ কাজ এগিয়ে চলছে। ২৭ নভেম্বর শুক্রবার জেলার ধর্মপাশা উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়নের গোপীনগর গ্রামের ভূমিহীন ও গৃহহীনদের জন্য গৃহনির্মাণ কাজ পরিদর্শন করেছেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আব্দুল আহাদ। এসময় ধর্মপাশা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মুনতাসির হাসান,ধর্মপাশা উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা,জয়শ্রী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও উপকারভোগীগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

মুজিব বর্ষে প্রধানমন্ত্রীর প্রতিশ্রুত আশ্রয়ণ প্রকল্পের আওতায় গৃহহীনদের জন্য এ গৃহ নির্মাণ হচ্ছে। উপজেলার গোপীনগর গ্রামের এই অংশে একইসাথে ৩২ টি পরিবারের জন্য ৩২টি গৃহ নির্মিত হচ্ছে। নির্মাণ কাজের অগ্রগতি ৮০ ভাগ বলে জানিয়েছেন নির্মাণকাজে নিয়োজিতরা। পরিদর্শণকালে গৃহ নির্মাণ কাজের গুনগত মান যাচাই করা হয় এবং উপকারভোগীদের সাথে বিস্তারিত কুশলাদি বিনিময় করেন জেলা প্রশাসক। উপকারভোগীরা প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত আধাপাকা ঘর পেয়ে আনন্দ প্রকাশ করেন।

 

জেলা প্রশাসক সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে গুনগত মান বজায় রেখে নির্মাণ কাজ নির্ধারিত সময়ে সম্পন্ন করতে সংশ্লিষ্ট সকলকে অনুরোধ করেন। সেই সাথে উপকারভোগীদের নিজেদের ঘরের কাজ প্রতিনিয়ত খেয়াল রাখতে এবং সঠিক কাজ বুঝে নিতে পরামর্শ প্রদান করেন। একই সময়ে দিরাই উপজেলার রাজানগর ইউনিয়নের রাজানগর গ্রামের গৃহহীনদের গৃহনিমার্ণ কাজ পরিদর্শন করেছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মো: জসীম উদ্দিন। এসময় দিরাই উপজেলার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ শফি উল্লাহ, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা ও উপকারভোগীগণ উপস্থিত ছিলেন।

 

দিরাই উপজেলার রাজানগর গ্রামে একই সাথে ৭ টি পরিবারের জন্য ৭টি গৃহ নির্মিত হচ্ছে। ৭ টি গৃহের নির্মাণ কাজের অগ্রগতি আনুমানিক ৭০ ভাগ বলে জানিয়েছে নির্মাণ কাজে জড়িতরা। পরিদর্শণকালে গৃহ নির্মাণ কাজের গুনগত মান যাচাই করা হয় এবং উপকারভোগীদের সাথে কুশলাদি বিনিময় করেন এডিসি মোঃ জসীম উদ্দিন। এসময় প্রধানমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত আধাপাকা ঘর পেয়ে উপরকারভোগীরা কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন সরকারের প্রতি। উপস্থিত ইউএনও ও পিআইও কে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়ে গুনগত মান বজায় রেখে নির্মাণ কাজ নির্ধারিত সময়ে সম্পন্ন করার আহবাণ জানান তিনি।