Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
ঝগড়া

ঝগড়া

তারিকুল হক: আমাদের জীবনে সবাইকে আমরা দোষ দিই, অভিমান করি, ঝগড়া করি। কখনও কি চিন্তা করেছি, কারণটা কী?

কে কবে আমাকে গালি দিয়েছিল, কার জন্মদিনে আমাকে দাওয়াত দেয়নি, কার বউভাতে আমাকে কার্ড পাঠায়নি; সুতরাং কথাবার্তা বন্ধ।

রোজার দিন রোজা রাখি, তারাবির নামাজ পড়ি, দু’ পয়সা বিলিয়ে দিয়ে আল্লাহকে বলি,
‘আল্লাহ, আমাকে বেহেশত দাও ’ অথচ আপন ভাই, বোন, খালা, মামা, বন্ধুবান্ধবের সাথে মুখ দেখাদেখি বন্ধ করি। একবারও বলি না, ‘চলো, আমরা একসাথে ইফতার করি!’

পাঠক, আমি আপনাকে কতকগুলো নিয়ম বলছি, আপনি যদি সেটা অনুসরণ করেন, জীবনটা হয়তো তাতে বেহেশত হবে না, তবে দোজখের চেয়ে ভালো হবে, এটা আমি বাজি ধরে বলতে পারি।

১. অপমানজনক কথা বলবেন না। পৃথিবীতে সুনামি, সাইক্লোন, মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধ যতখানি ক্ষতি করেছে, তার চেয়ে বেশি ক্ষতি করেছে আপনার জিহবা । তাই কিছু বলার আগে একবার চিন্তা করুন, কী আপনি বলছেন।

২. ঝগড়ার সময় শান্ত থাকুন। আমি জানি এটা খুবই কঠিন, তবু শুনুন অন্যরা কী বলছেন। সাথে সাথে পাল্টা আক্রমণ করবেন না।

৩. একবার দশ মিনিট সময় নিয়ে একা একা বসে চিন্তা করুন, এই ঝগড়া কেন হয়েছিল। প্ল্যান করুন, ভবিষ্যতে এটা যেন আর না হয়।

৪. আরেকজনকে কথা বলতে দিন। এটা খুবই ভালো একটা পদ্ধতি। পাঁচ মিনিট হোক, দশ মিনিট হোক। যে মুহূর্তে বক্তা গড়গড় করে তার ঝাল ঝাড়বে, দেখবেন তার রাগ কমে গেছে।

৫. খাওয়ার আগে কখনও তর্ক করবেন না। খাওয়ার পর তর্ক করলে সাধারণত তা চরম পর্যায়ে যায় না।

৬. কখনও দলাদলির মধ্যে যাবেন না। ‘শত্র“র শত্র“ আমার বন্ধু’ এই মনোভাব ত্যাগ করুন।
আপনার সাথে যারা ঝগড়া করেছে, তাদের বন্ধুবান্ধবকে দাওয়াত করে খাওয়ান । দেখবেন তারা আপনার মহত্ত্ব বুঝবে ও উপলব্ধি করবে।

৭. আপনাদের যে কমোন ফ্রেন্ড আছে, তাদের উদ্যোগ নিতে বলুন, হয়তো বা কোনো এক রবীন্দ্রজয়ন্তীতে বা ঈদ পুনর্মিলনীতে দু’পক্ষকে দাওয়াত দিতে। দেখবেন ওখানে গিয়ে আপনার রাগ অনেক পড়ে গেছে।

৮. যে জিনিসটি পরিবর্তন করতে পারবেন না, সেটা মেনে নিন। যুক্তি দিয়ে নয়, হৃদয় দিয়ে।

৯. ক্ষমা করুন এবং ভুলে যান। এটা আমি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ মনে করি। আপনার রাগ যদি বয়ে বেড়ান, দেখবেন আপনি দগ্ধ হয়ে গেছেন।

পাঠক, আমি আবারও বলছি, জীবনটা এত ক্ষণস্থায়ী, চেষ্টা করুন না মিলেমিশে থাকতে। আপনি যদি তর্কেও জেতেন, মনে মনে প্রতিপক্ষের কাছে হেরে যাবেন।

আপনি আপনার নিজের উপকারের জন্য অন্যকে ক্ষমা করুন।

আপনার মনের বিষ আপনাকে আর কষ্ট দেবেনা ।
লেখক : তারিকুল হক

লাইক ও শেয়ার করুন:
BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes
Scroll Up
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error: Content is protected !!