Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
Home » সংবাদ শিরোনাম » অর্থের অভাবে চিকিৎসা বন্ধ জনির
অর্থের অভাবে চিকিৎসা বন্ধ জনির
bty

অর্থের অভাবে চিকিৎসা বন্ধ জনির

শ্রীপুর (গাজীপুর) প্রতিনিধিঃ বাইশ বছরের যুবক আশিকুল জামান জনি। এই বয়সে যেখানে সমবয়সী বন্ধুরা ঘুরে ফিরে পৃথিবীর আলো বাতাসের সাথে পরিচিত হচ্ছে সেখানে তাকে ধুঁকতে হচ্ছে মরনব্যাধী ক্যান্সারে বিছানায় শুয়ে বসে। গাজীপুর জেলার শ্রীপুর উপজেলার বরমী ইউনিয়নের দুর্লভপুর গ্রামের দিনমজুর সামাদ-মিনারা বেগম দম্পতির বড় সন্তান জনি। সে শ্রীপুর বীর মুক্তিযোদ্ধা রহমত আলী সরকারী বিশ্ববিদ্যালয়ের  প্রথম বর্ষে অধ্যয়নরত ।

নিজের জমি নেই, অন্যের জমি চাষ করে পরিবারের একমাত্র উপার্জনক্ষম দিনমজুর বাবা সহায় সম্বল হারিয়ে চিকিৎসার আংশিক কাজ শেষ করেছিলেন ছেলের। কিন্তু এখন আর কোন উপায় না পেয়ে মাঝপথে থমকে গেছে জনির চিকিৎসা কার্যক্রম। অর্থের অভাবে জীবন প্রদীপ নিভতে বসেছে জনির।

জনির বাড়ী গিয়ে দেখা যায় রাস্তাবিহীন একটি ছোট্ট জলাশয়ের পাশে তিন শতাংশ জমির উপর দুটি ঘর।একটি জীর্ণ মাটির তৈরী দু’চালা ও একটি ছাপড়া টিনের ঘর। ঘরের আসবাব বলতে একটি পুরনো খাট, চৌকি ও আলনা। ঘরের মেঝেতে ছড়িয়ে ঝিটিয়ে রয়েছে তৈজনসপত্র। জনির ক্যান্সার ধরার পড়ার পর থেকে দরিদ্র পরিবারের সুন্দর গোছানো সংসারের যে ছন্দ পতন হয়েছে তার বাড়ীতে গেলেই ধারনায় চলে আসে।

ক্যান্সারে আক্রান্ত জনি জানায়, গত জানুয়ারী মাসে তাঁর অন্ডকোষে টিউমার ধরা পড়ে। অর্থের অভাবে তখনই টিউমারের চিকিৎসা করাতে পারেনি সে। ফেব্রæয়ারী মাসে সে মোটরসাইকেল দূর্ঘটনায় পড়লে রাজধানী ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যায়। পরে চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী অন্ডোকোষের টিউমারটির অপারেশনের পর বায়োপসি রিপোর্টে কোলন ক্যান্সারের বিষয়টি ধরা পরে। তবে চিকিৎসকরা জানায় তার ক্যান্সার প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে, ঠিকমত কেমোথেরাপী দিলে সুস্থ হয়ে উঠবে সে।

জনির বাবা জানান, ছেলের ক্যান্সার ধরা পরার পর থেকে বিভিন্ন আত্মীয় স্বজনদের কাছ থেকে ধার দেনা করে এপর্যন্ত জনির চিকিৎসায় প্রায় আড়াই লাখ টাকা খরচ হয়েছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছে তাকে মোট ৬টি ক্যামো থেরাপি দেয়া লাগবে। এর মধ্যে দুটি কেমো থেরাপি দেয়া সম্পন্ন হয়েছে। প্রতিটি ক্যামো দিতে ঔষধ ও যাবতীয় খরচসহ প্রায় ৪০হাজার টাকা প্রয়োজন, আবার দৈনিক ঔষধ কিনে দেয়া লাগে। আমার যে পরিমান আয় তা দিয়ে সংসারই চলে না, এ পর্যন্ত ছেলের চিকিৎসা করাতে গিয়ে প্রায় নি:স্ব হয়ে পড়েছি। টাকার অভাবে এখন বন্ধ হওয়ার পথে ছেলের চিকিৎসা। তাই সৃষ্টিকর্তার উপর ভরসা করে ছেলেকে সপে দিয়েছি।

এব্যাপারে বরমী ইউনিয়ন পরিষদের ৫নং ওয়ার্ড সদস্য নাজমুল আকন্দ রনি জানান, এলাকায় ছেলেটির ভাল সুনাম রয়েছে। সে খুব মেধাবী, তার দিন মজুর বাবার স্বপ্ন ছিল ছেলে উচ্চ শিক্ষায় শিক্ষিত করে পরিবারের অভাব ঘুচাবে। তার এ স্বপ্নে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে মরণব্যাধী ক্যান্সার। চিকিৎসক জানিয়েছে তার আরো চারটি ক্যামো থেরাপি লাগবে। টাকার কাছে এমন উজ্জ্বল সম্ভাবনা থেমে যেতে পারে না। তার অসহায়ত্বের কথা বিবেচনা করে জনির চিকিৎসা বাবদ আমরা স্থানীয় ভাবে কিছু টাকা তুলে তার বাবার হাতে দিয়েছে, যা চিকিৎসার তুলনায় খুবই সামান্য। জনির চিকিৎসার জন্য আমরা সবাই যদি এগিয়ে আসি তাহলে একটি সুন্দর জীবন আবারও ঘুরে দাড়াতে পারে।

কেউ জনিকে চিকিৎসার জন্য সাহায্য পাঠাতে চাইলে :
ব্যাংকের নাম : অগ্রণী ব্যাংক লিমিটেড
হিসাবধারীর নাম : আশিকুল জামান
শাখা : বরমী বাজার শাখা, শ্রীপুর
হিসাব নং : ০২০০০১৩৩৭৭৩৯৯

মোবাইল নাম্বার ০১৬২৫৪০৪০৬৭ (আশিকুল জামান জনি)
এই নম্বর গুলোতে কথা বলে মোবাইল ব্যাংকিংয়ে সাহায্য পাঠাতে পারেন
০১৭৭৪৭৩৩২৪৭, ০১৯৮৩৯২৬৫৪৪

Please follow and like us:
error0
BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes
Scroll Up
error: Content is protected !!