JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.
সংবাদ শিরোনাম:

নাটোরের নলডাঙ্গার উপজেলা নির্বাচনে জনসমর্থনে এগিয়ে -তৌহিদুর রহমান লিটন

নাটোর প্রতিনিধি:

১৯৯১ সালের ৫ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনের মধ্য দিয়ে সর্ব কনিষ্ট ,ক্ষুদে কর্মী হিসাবে রাজনীতিতে পর্দাপণ। ৭৫পরবর্তী ছাত্রলীগের প্রথম সক্রীয় কর্মী হিসাবে বিপ্রবেলঘড়িয়া ইঊনিয়নে ছাত্র রাজনীতির স‚চনা (১৯৯২)। ১৯৯৪ সালে ইঊনিয়ন ছাত্রলীগের আহব¦ায়ক হিসাবে দায়িত্ব পালন ।জেলা ছ্ত্রালীগের তৎকালীন সভাপতি মাসুদ ভাইয়ের সহযোগীতায় ইঊনিয়ন ছাত্রলীগের কমিটি গঠন এবং অর্থ-সম্পাদকের দায়িত্ব পালন করেন।সেই সাথে তার নেতৃত্বে গঠিত হয় বিপ্রবেলঘরিয়া ইউনিয়ন যুবলীগ কমিটি ।

স্বাধীনতা পরবর্তী এটিই এই ইঊনিয়নের প্রথম কমিটি।কমিটি গঠনের কিছুদিন পরেই বাংলা ভাইয়ের গডফাদার দুলুর সন্ত্রাসী বাহিনীর হাতে নির্মম ভাবে প্রহৃত হনতিনি। তাকে দেখতে আসেন উত্তর বঙ্গের অবিসংবাদিত নেতা বাবু শংকর গোবিন্দ চৌধুরী,জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি মাসুদ,এন,এস সরকারি কলেজ ছাত্র সংসদের ভিপি প্রার্থী আঃ রাজ্জাক ডাবলু ভাই সহ অনেকে। বিএনপির সন্ত্রাসীরা তাদের ঊপরও হামলা চালায় এবং ডাবলু ভাইয়ের হাত ভেঙ্গে দেয়।যে চিহ্ন এখনো তার শরীরে বিদ্যমান।

১৯৯৭ সালে নাটোর থানা ছাত্রলীগের সম্মেলনে বিনা প্রতিদ্ব›দ্বীতায় থানা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক নির্বাচিত হন। কিন্তুু বিবাহিত হওয়ার কারনে তাৎক্ষনাত তার মনোনয়ন বাতিল করা হয়।১৯৯৯ সালে আবারো বিএনপির সন্ত্রাসীদের হাতে রক্তাত্ব জখম হন।তারপরও দুলুর রক্ত চক্ষুকে ঊপেক্ষা করে জাতীর জনকের আর্দশ বুকে ধারন করে আওয়ামীলীগকে সুসংগঠিত করার কাজে নিজেকে নিয়োজিত করেন ।২০০১সালের ৮ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গুরত্বপ‚র্ন ভ’মিকা পালন করেন এবং ভোটের পর দুলুর নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ২০০৮সাল পর্যন্ত নিজ দেশে মানবেতর পরবাসী জীবন যাপন করেন।ফকরুদ্দিন সরকারের আমলে আবারো এলাকায় ফিরে আসেন তিনি এবং আবারও দলকে সুসংগঠিত করার কাজ হাতে নেন।

৯ম জাতীয় সংসদ নির্বাচনে গুরুত্বপ‚র্ন ভ‚মিকা রাখেন এবং ২০১২ সালে উপজেলা আওয়ামী যুব লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক হিসাবে দায়িত্ব পান। অদ্যবদি সততা ও নিষ্ঠার সাথে তার ঊপর অর্পিত সকল দায়িত্ব পালন করে আসছেন।একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নলডাঙ্গা উপজেলায় সর্বো”চ শ্রম, সর্বো”চ অর্থ, সর্বো”চ কর্মী দিয়ে সর্বো”চ ভোট নৌকায়র পক্ষে জনগনকে উৎজিবিত করেছেন ।২০১৬সালের ৭ই মে অনুষ্ঠিতব্য ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হয়ে [আনারস মার্কা] সর্বো”চ ভোট পান, কিন্তু তার দাবি তার পরেও তাকে পরাজিত বরন করতে হয় ।

ইতিমধ্যে তিনি বিনা প্রতিদ্ব›দ্বীতায় পরপর দুই বার ঐতিহ্যবাহী শ্রীশচন্দ্র বিদ্যানিকেতন বাসুদেবপুর উচ্চ বিদ্যালয়ও ড:নাসির উদ্দিন তালুকদার মহাবিদ্যালয়ের গভর্নিং বডির সভাপতি নির্বাচিত হন ।এখন পর্যন্তও দুটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সততা ও নিষ্ঠার সাথে দ্বায়িত্ব পালন করেছেন । তার পিতা তোতামিয়া জেলা শ্রমিক লীগের সহ-সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন ।

স্ত্রী শিরিন আক্তার নলডাঙ্গা উপজেলা যুবমহিলা লীগের সভাপতি হিসাবে দায়িত্ব পালন করছেন ।চাচা-লিয়াকত আলী মাষ্টার নলডাঙ্গা উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার হিসাবে নিয়োজিত আছেন । তিনি বলেন আমি মুজিব সেনা-শিমুল সেনা দুই-ই । তিনি বলেনআমি মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সন্তান, আওয়ামীলীগ পরিবারের সন্তান ।উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে জয়ের ব্যাপারে তিনি শতভাগ আশাবাদী ।

সংবাদ পড়ুন, লাইক দিন এবং শেয়ার করুন

Comments

comments

About আওয়াজ অনলাইন

x

Check Also

সিরাজগঞ্জে বিরল প্রজাতির মদন টাক পাখি উদ্ধার 

হুমায়ুন কবির সুমন, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি: সিরাজগঞ্জে বিরল প্রজাতির একটি মদন টাক পাখি উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার ...

error: Content is protected !!