JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.
সংবাদ শিরোনাম:

নওগাঁর সাপাহারে বাল্য বিয়ে নিজেই বন্ধ করলো ৬ষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী মোরশেদা

জাহিদুল হক মিন্টু, নওগাঁ জেলা প্রতিনিধি: নওগাঁর সাপাহার উপজেলার একেবারে সীমান্ত ঘেঁষা প্রত্যন্ত অঞ্চল পাতাড়ী ইউনিয়নের পাতাড়ী ড্রেনপাড়া গ্রামের ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে পড়–য়া এক শিক্ষার্থী ১০৯ নম্বারে কল দিয়ে নিজের বিয়ে নিজেই বন্ধ করে এলাকায় এক রেকর্ড সৃষ্টি করেছেন। সৎসাহসী ওই শিক্ষার্থীর নাম মোরশেদা খাতুন (১৩) সে পাতাড়ী ফাজিল মাদ্রাসার ৬ষ্ঠ শ্রেণীতে লেখা পড়া করত এবং সে পাতাড়ী ড্রেনপাড়া গ্রামের মোকলেছুর রহমান ও ম’া ফেরদৌসী বেগম এর মেয়ে বলে জানা গেছে।
ঘটনর বিবরণে জানা যায় মাদ্রাসা পড়–য়া ওই শিক্ষার্থীর বাবা-মা পাশের গ্রামের এক ছেলে সাথে তার মেয়ের বিয়ে দেয়ার সকল প্রস্ততি সম্পন্ন করে ১২ডিসেম্বর মঙ্গলবার দিন তারিখ ধায্য করেছিলেন। বাড়ীতে বিয়ের সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হতে দেখে শিক্ষার্থী মোরশেদা গ্রামে অবস্থিত বে-সরকারী সংগঠন বিএসডিও এবং বিডিও এর শিশু বিকাশ কেন্দ্র ও লোক কেন্দ্রে গিয়ে কেন্দ্রের ম্যানেজারকে কোন কথা না বলে ঘরের দরজা খুলে ঘরে প্রবেশ করে এবং দেয়ালের চার্টে টাঙ্গানো জরুরী ভিত্তিতে কল করার জন্য সরকারী ফোন নম্বর গুলি তার নিজ খাতায় লিখে নিয়ে দৌড়ে বাসায় ফিরে। এর পর সে নিজ ঘরে ঢুকে নতার বিয়ে বন্ধের জন্য ১০৯ নম্বারে কল দেয়ার চেষ্টা করতে থাকে। ঠিক এ সময়ে তার মা ফেরদৌসী বেগম মেয়ের কল করে বিয়ে বন্ধ করার কৌশল বুঝতে পেরে মেয়ের হাত থেকে মোবাইল কেড়ে নিয়ে উপর শারীরীক নির্যাতন চালাতে শুরু করে।

নির্যাতনের এক পর্যায়ে সে এই নম্বর কোথায় পেল জানার জন্য চাপ প্রয়োগ করতে থাকলে শিক্ষার্থী মোরশেদা নম্বারটি তার গ্রামের লোক কেন্দ্রের ম্যানেজার শারমীন আক্তার এর নাম বলে দেয়। এর পর ওই মেয়ের বাবা মা লোক কেন্দ্রের ম্যানেজারের প্রতি চড়াও হয়ে তাকে বিভিন্ন ধরনের হুমকী ধামকী প্রদর্শন করে প্রশাসনসহ বিভিন্ন দপ্তরের ভয়ে সন্ত্রস্থ হয়ে আপাতত মেয়ের বিয়ে বন্ধ করে দেন। নিজের বুদ্ধি মত্তার জোরে নিজের বিয়ে নিজে বন্ধ করার জন্য এলাকাবাসী ওই শিক্ষার্থী মোরশেদা খাতনকে ধন্যবাদ জানান। এবিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার কল্যান চৌধুরীর সাথে কথা হলে তিনি জানান যে, এধরনের সংবাদ তিনি পাননি পেলে তাৎক্ষনিক ব্যাবস্থা নিতেন তবে এই প্রতিনিধির নিকট থেকে শুনে তিনি এর ব্যাবস্থা গ্রহনের উদ্যোগ নিবেন বলে জানান।

সংবাদ পড়ুন, লাইক দিন এবং শেয়ার করুন

Comments

comments

About আওয়াজ অনলাইন

x

Check Also

সিদ্ধিরগঞ্জের রাসেল ও সজিবকে ডেমরা থানা পুলিশের হাতে ইয়াবাসহ গ্রেফতার

জাকির হোসেন, সিদ্ধিরগঞ্জ প্রতিনিধি: সিদ্ধিরগঞ্জের সানারপাড় নিমাইকারী এলাকার রাসেল@ ইয়াবা রাসেল ও সজিবকে ডেমরা থানা পুলিশ গ্রেফতার ...

error: Content is protected !!