JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.
সংবাদ শিরোনাম:

একুশে আগস্ট গ্রেনেড হামলা মামলার রায় কাল

আওয়াজ অনলাইন : ২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের সমাবেশে গ্রেনেড হামলার মূল্য লক্ষ্য ছিলো শেখ হাসিনাকে হত্যা করা।

এই হামলার মূলহোতা ছিলেন তারেক রহমান। যিনি সব ধরনের প্রশাসনিক সহায়তা দিয়েছিলেন। এছাড়া হামলার ঘটনায় তদন্তের নামে সাজানো হয়েছিল জজ মিয়া নাটক। মামলার ৪৯ আসামির সবারই সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছে রাষ্ট্রপক্ষ।

২০০৪ সালের ২১ আগস্ট আওয়ামী লীগের সন্ত্রাস বিরোধী সমাবেশে গ্রেনেড হামলায়, কপাল গুনে সে সময়ের বিরোধী দলীয় নেত্রী শেখ হাসিনা বেঁচে গেলেও, সবমিলিয়ে নিহত হন ২৪ জন।

হামলার পরদিনই মতিঝিল থানায় মামলা করে পুলিশ। তদন্তের নামে শুরু হয় নাটক। ঘটনা ভিন্নখাতে নিতে সাজানো জবানবন্দি নেয়া হয়, গুলিস্তানের হকার জজ মিয়ার।

তবে গণমাধ্যমের অনুসন্ধানে বেরিয়ে আসে ঘটনার আড়ালের ঘটনা। অবশেষে ২০০৮ সালে মুফতি হান্নানসহ ২২ জনের বিরুদ্ধে দেয়া হয় হত্যা ও বিস্ফোরক আইনে দুটি অভিযোগপত্র। মামলা দুটির দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে স্থানান্তরের পর শুরু হয় বিচার। ৬১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ পর্যায়ে, ২০০৯ সালে মামলার অধিকতর তদন্তের জন্য আবেদন করে রাষ্ট্রপক্ষ। এটি মঞ্জুরের দুবছরের মাথায় আদালতে সম্পূরক অভিযোগপত্র দেয় সিআইডি।

এ সময় তারেক রহমান, আলী আহসান মুজাহিদ, লুৎফুজ্জামান বাবর ও হারিছ চৌধুরীসহ ৩০ জনের বিরুদ্ধে নতুন করে দেয়া হয় অভিযোগপত্র। পরে রাষ্ট্রপক্ষে নেয়া হয় ২২৫ জনের সাক্ষ্য। সাফাই সাক্ষী দেন আসামিরাও।

গেলো সেপ্টেম্বরে উভয়পক্ষের যুক্তি পাল্টা যুক্তি উপস্থাপন শেষে, ১০ অক্টোবর রায়ের দিন ঘোষণা করেন আদালত। রাষ্ট্রপক্ষ বলছে, সব আসামি একই উদ্দেশে গ্রেনেড হামলা চালিয়েছে, তাই তাদের সর্বোচ্চ শাস্তিই প্রাপ্য।

আর আসামি পক্ষের আইনজীবীদের দাবি, শুধু মুফতি হান্নানের জবানবন্দির ওপর তারেক রহমানসহ অন্যান্যদের সাজা দেয়া হলে, তা হবে দুর্ভাগ্যজনক।

আলী আহসান মুজাহিদ, মুফতি হানান্ন এবং বিপুলের ভিন্ন মামলায় ফাঁসি কার্যকর হওয়ায় আলোচিত এই মামলার আসামি এখন ৪৯ জন। এরমধ্যে ১৮ জন পলাতক। বাকিরা কারাগারে। /এইচ.

Comments

comments

About আওয়াজ অনলাইন

x

Check Also

ঠাকুরগাঁওয়ে কলেজছাত্রীকে মারপিট

মোঃ ইসলাম ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি :  ঠাকুরগাঁও শহরের গোয়ালপাড়া এলাকায় কলেজছাত্রী রুবি আক্তারকে কে মারপিট ...

error: Content is protected !!