JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.

গর্ভাবস্থায় যা খেতে মানা

আওয়াজ অনলাইন : গর্ভধারণ ব্যাপারটা প্রত্যেক মেয়ের জন্য অনেক আনন্দের। কিন্তু আনন্দের পাশাপাশি প্রত্যেক ‘মা’ কে পুরো গর্ভাবস্থায় কিছু সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়, আর থাকতে হয় অনেক বেশী সাবধান। কেননা এই সময়টিতে সামান্য ভুল কিংবা অসাবধানতার কারণে ঘটে যেতে পারে অনাকাঙ্খিত ঘটনা।

সুস্থ থাকার জন্য সব সময়ই সুষম খাদ্য খাওয়া উচিত্। কিন্তু গর্ভাবস্থার জন্য এটি আরো বেশি গুরুত্বপূর্ণ। গর্ভের শিশুটি যাতে প্রয়োজনীয় পুষ্টি পায় তা নিশ্চিত করতে হবে আপনাকেই। আর এমনই কিছু খাবারে তালিকা দেওয়া হল যা গর্ভবতী মহিলাদের এড়িযে যেতে হবে সতর্কতার সাথে।

১। কাঁচা ডিম : ডিম পুষ্টিকর একটি খাবার। অনেকেরই কাঁচা কিংবা অর্ধসিদ্ধ ডিম খাওয়ার অভ্যাস থাকে। কিন্তু গর্ভাবস্থায় কাঁচা ডিম খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে। কারণ কাঁচা ডিমে সালমোনেলা নামক ব্যাকটেরিয়া থাকে। তাই ডিম ভালোভাবে সিদ্ধ না করে খাওয়া যাবেনা।

২। কাঁচা বা আধা সিদ্ধ মাংস : কাঁচা বা আধা সিদ্ধ মাংস খাওয়া যাবে না।এমন কি প্যাকট জাত মাংসের খাবার যেমন সসেজ,সালামি,পেপারনি ইত্যাদি খাওয়ে থেকে বিরত থাকত হবে। ১৪৫ ডিগ্রী তাপমাত্রায় মাছ, মাংস রান্না করতে হবে।

৩। অপাস্তুরিত দুধ : অপাস্তুরিত দুধ বা কাঁচা দুধে লিস্টেরিয়া নামক ব্যাকটেরিয়া থাকে। তাই ভালো করে না ফুটিয়ে দুধ পান করা যাবেনা। অপাস্তুরিত দুধ দিয়ে তৈরি খাবার যেমন- নরম পনির খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।

৪। কলিজা ও কলিজার তৈরি খাবার : লিভারে রেটিনল থাকে যা একটি প্রাণীজ ভিটামিন এ। এর অতিরিক্ততা গর্ভের শিশুর জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।

৫। ক্যাফেইন : কফি ক্লান্তি দূর করার জন্য সবচেয়ে কার্যকর। এই কফি খাওয়া কমিয়ে দিতে হবে গর্ভকালীন সময়ে। কফিতে থাকে ক্যাফিন নামক উপাদান থাকে,যা অতিরিক্ত পান করার ফলে মিসক্যারেজের মত ঘটানা ও ঘটতে পারে। প্রতিদিন ২০০ মিঃগ্রা এর চেয়ে কম ক্যাফিন খাও্য়া যেতে পারে। এক কাপ কফিতে থাকে ৯৫ মিঃগ্রা ক্যাফিন আর এক কাপ চায়ে থাকে ৪৭ মিঃগ্রা ক্যাফিন।

৬। এলকোহল সমৃদ্ধ খাবার : এটি আপনার আনাগত সন্তানের বিভিন্ন অঙ্গ যেমন ব্রেইন,নার্ভ ইত্যাদি তৈরিতে বাধাঁ সৃষ্টি করে। শুধু এলকোহল নয় যে সক

৬। সামুদ্রিক মাছ : সামুদ্রিক মাছ স্বাস্থ্যের জন্য উপকারী। কিন্তু অধিক পরিমাণে খেলে গর্ভের শিশুর স্নায়ুতন্ত্রের ক্ষতি হয়। কারণ সামুদ্রিক মাছে পারদ জাতীয় পদার্থ থাকে।

৭। কাঁচা বা আধা পাকা পেঁপে : গর্ভবতী মহিলাদের জন্য কাঁচা বা আধা পাকা পেঁপে খাওয়া বিপদজনক। এতে গর্ভপাতের মত ঘটনা ঘটতে পারে।

৮। আঙ্গুর : আঙ্গুর যাদের প্রিয় তাদের জন্য বলছি গর্ভকালীন অবস্থায় আঙ্গুর খাওয়া থেকে দূরে থাকুন। আঙ্গুর আপনার স্টোমাককে গরম করে ডারিয়ার মত রোগ হতে পারে। তাই প্রিয় ফলকে ৯ মাসের জন্য দূরে রাখুন। /এইচ.

সংবাদ পড়ুন, লাইক দিন এবং শেয়ার করুন

Comments

comments

About গণমানুষের আওয়াজ.কম

x

Check Also

বগুড়ার ধুনটে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবস পালিত

এম.এ.রাশেদ বগুড়া প্রতিনিধি:  বগুড়ার ধুনটে জাতীয় তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি দিবস পালিত হয়েছে। বুধবার দুপুরে ...

error: Content is protected !!