JavaScript must be enabled in order for you to see "WP Copy Data Protect" effect. However, it seems JavaScript is either disabled or not supported by your browser. To see full result of "WP Copy Data Protector", enable JavaScript by changing your browser options, then try again.
সংবাদ শিরোনাম:

এবার কেমন হবে ঈদের সাজ

আওয়াজ অনলাইন : চলছে ঈদের শেষ মুহূর্তের কেনাকাটা। এর মধ্যেই অনেকেরই হয়তো ঈদের পোশাক কেনা হয়েছে। আর পোশাক কেনার পরই ঈদের সাজটা কেমন হবে তা নিয়ে চলছে ভাবনা। যারা সারাবছর খুব একটা সাজেন না, তারাও ঈদের উত্সবমুখর দিনে নিজেকে নতুনভাবে দেখতে চান।

কেননা ঈদ মানেই উত্সব। আর উত্সবে চাই জমকালো সাজ। শুধু নতুন পোশাকের আয়োজনে নয়, সাজেও চাই বৈচিত্র্য। তাই ঈদের আগে সাজগোজে মন দিচ্ছেন অনেকেই। ছোটখাটো বিষয়গুলো জানা থাকলে সাজে আসবে নতুনত্ব।

গতানুগতিক সাজের বাইরে নিজেকে একটু ভিন্নভাবে উপস্থাপন করার ইচ্ছে সবার মনেই কমবেশি জাগে। ঈদের দিন সাধারণত সৌন্দর্যচর্চার কেন্দ্রগুলো বন্ধ থাকে। তাই নিজের সাজটা নিজেকেই করে নিতে হয়। ঘরে আবার থাকে হাজারো কাজ। তাই খুব বেশি পরীক্ষণের দিকে যাওয়াটাও সম্ভব হয়ে ওঠে না। চেনা সাজেই নিজেকে নতুন করে সাজিয়ে নিতে পারেন।

সময়টা যেহেতু বৃষ্টি আর ভাপসা গরমের দখলে, তাই সাজগোজ এবং পোশাক বাছাই করতে হবে একটু ভেবে চিন্তে। তাছাড়া সাজগোজে মানুষের রুচির বহিঃপ্রকাশ ঘটে, সে কথাটাও মাথায় রাখতে হবে।

নতুন ঢঙে ঈদের সাজ :
হালকা সাজে স্নিগ্ধতা দিয়ে শুরু হোক ঈদের সকালঈদের দিনের সকালটা শুরু হতে পারে হালকা ছিমছাম সাজের মধ্য দিয়ে। শাড়ি, সালোয়ার-কামিজ, ফতুয়া, জিন্স যেটাই হোক তার সঙ্গে ম্যাচিং করে চুড়ি, কানে এক পাথরের দুল বা টপতো পরাই যায়। পায়ে থাকতে পারে দুই ফিতার চটি স্যান্ডেল। সবার মধ্যেই খুশি খুশি ভাবটা থাকে, তাই সাজগোজেও থাকবে প্রাকৃতিক ভাব। ঈদের আনন্দে ধুয়েমুছে পরিষ্কার হয়ে যাবে চেহারায় লুকায়িত মলিনতা।

নিজেকে সতেজ আর আনন্দিত দেখানোর জন্য হালকা মেকআপই যথেষ্ট। মুখ পরিষ্কার করে হালকা বেইস নিতে পারেন। এরপর ফেস পাউডারের আলতো প্রলেপ দিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিতে পারেন।

নেইল পলিশ ঈদের সাজ :

নেইল পলিশ আর মেহেদিঈদের আগের রাতে নেইল পলিশ আর মেহেদি লাগানোর ঝামেলা মিটিয়ে রাখাটাই বুদ্ধিমানের কাজ হবে। এদিন ত্বকের যত্ন নিতেও ভোলা যাবে না। ভুল করা যাবে না হাত, পা, কনুই, ঘাড়ে, পিঠে ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিতে। ঈদের দিন খসখসে ত্বকের বিড়ম্বনায় পড়তে না চাইলে আগের দিন এতটুকু সচেতনতা অবলম্বন করতেই হবে।

ঈদের চোখের সাজ :

চোখের সাজচোখে শ্যাডো লাগানোর সঙ্গে হালকাভাবে হাইলাইট করা যায়, যা প্রায় বোঝা যাবে না। কিন্তু চোখ সুন্দর দেখাবে। চোখের কোনে চিকন করে কাজল লাগাতে পারেন। লাইনার লাগানো যায়, তবে সেটি পানিরোধক কি না খেয়াল রাখতে হবে। মাশকারা দিলে চোখের উজ্জ্বল ভাবটি ফুটে উঠবে। এরপর হালকা ব্লাসন লাগান। ব্লাসন হালকা হলে চেহারা আরো সতেজ দেখাবে।

ঈদের ঠোঁট ও চুলের সাজ :

ঠোঁট এবং চুলের সাজআপনার সাজে পূর্ণতা দেবে উজ্জ্বল রঙের লিপস্টিক। বৃষ্টিতে ম্যাট লিপস্টিক উপকার দেবে। কোনো দাওয়াতে গেলে গ্লসি লিপস্টিক ব্যবহার করতে পারেন। সব আয়োজন শেষে আপনার সৌন্দর্যের ফোকাস নির্ভর করবে চুলের ওপর। আপনার চুলের স্টাইল আকর্ষণীয় হলে ছেড়ে রাখতে পারেন নির্দ্বিধায়। তবে বিভিন্ন স্টাইলে চুলকে বেঁধে নিলেও আপনাকে অন্যরকম লুক দেবে। সালোয়ার-কামিজের সঙ্গে বিভিন্ন স্টাইলের বেণী করতে পারেন কিংবা চুল ছোট হলে ব্লো ড্রাই করে ছেড়ে রাখতে পারেন। শাড়ির সঙ্গে ব্লো ড্রাই করে রাখলে স্টাইলিশ লাগবে।

গহনার সাজে ঈদ :

গহনার সাজঈদের দিন পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে হালকা গহনাও পরতে পারেন। তবে ভারী গহনা এড়িয়ে চলায় ভালো। আপনার সুন্দর সাজের সঙ্গে মনের মাধুরি মিশানো হাসি দিয়েই শুরু করুন সারাদিনের কর্মসূচি। উপভোগ করুন ঈদের পুরো দিন। পরিবারের সব সদস্যের জন্য নিজেকে করে তুলুন আকর্ষণীয়। অতিথি আপ্যায়নে নিজেকে শামিল করুন দারুণ পারদর্শী হিসেবে।

সালোয়ার-কামিজে ঈদের সাজ :

সালোয়ার-কামিজে অন্য রকমপাশ্চাত্যে চুলের সাজে মোহক লুক এখন বেশ জনপ্রিয়। সালোয়ার-কামিজের সঙ্গেও এটি চেষ্টা করে দেখা যেতে পারে। বাঁ দিকের চুল একটু পাফ করে এলোমেলোভাবে ছেড়ে দিন। তিনটি চিকন বেণি করে ডান দিকে রাখুন। চোখের সাজে রয়্যাল ব্লু আর কালোর মিশ্রণে একটা শেড আনা হয়েছে। ঠোঁটে উজ্জ্বল কমলা রঙের লিপস্টিকের ব্যবহার সাজে এনে দেবে উৎসবের ভাব।

ঈদে হাতের ব্যাগ ও জুতার সাজ :

হাতের ব্যাগ এবং জুতাসাজ শেষে নজর দিতে হবে হাতের ব্যাগ এবং জুতার দিকে। এমন সাজে ক্ল্যাচ ব্যাগ সবচেয়ে মানিয়ে যায়। পাথর বসানো নকশাদার ব্যাগটি রাতের আলোয় আরো বেশি চমৎকার লাগবে। এদিকে পায়ের জুতাটি বেছে নিতে পারেন হাই হিলের মধ্যে। শাড়ি বা লেহেঙ্গায় উঁচু জুতার বিকল্প ভাবা যায় না। তবে আমাদের দেশেও পার্টি ড্রেসে হাইনেক বা হাই নী জুতার ব্যবহার বেড়েছে। এসব জুতায় আউটলুকে আনে আমূল পরিবর্তন। সবমিলিয়ে আপনাকে দেখাবে জমকালো। এবার মোহময় সুগন্ধী ছড়িয়ে আবিষ্কার করুন অন্য এক আপনাকে। কারণ সুগন্ধ মানুষের মনে পুলকিত প্রভাব ফেলে।

টিপসঈদের দিন নিজেকে বিশেষভাবে সাজাতে পরিকল্পনার অন্ত থাকে না। সবার মাঝে একটু বেশি স্টাইলিস আর নিজেকে নতুন আঙ্গিকে উপস্থাপন করা নিয়ে মাথার ভিতর ঘুর ঘুর করতে থাকে বিভিন্ন আয়োজন। কিন্তু সামান্য কিছু ভুলে সব পরিকল্পনা ভণ্ডুল হয়ে যেতে পারে।

সুন্দর দেখানোর প্রচেষ্টা পরিণত হতে পারে অসুন্দরে। তাই আপনার পরিকল্পনার সঙ্গে যদি কিছু বিশেষ টিপস যোগ হয় তাহলে ঈদের দিনের মেকআপ গেটআপে নতুন মাত্রা যোগ হবে সন্দেহ নেই। তেমন কিছু প্রয়োজনীয় টিপস দেওয়া হলো আপনারই জন্য।

* দিনের বেলা খুব বেশি মেকআপ না নেওয়াই ভালো। এসময় মেকআপের বেস হালকা হলে দেখতে বেশি সুন্দর দেখাবে।

* সকালে চোখজোড়া আকর্ষণীয় করে সাজাতে পারেন। এ জন্য দুই রঙের কাজলের রেখা টানতে পারেন। আর কাজলের রং দুটি পোশাকের সঙ্গে মিলিয়ে নিলেই ভালো।

* কাজল ব্যবহার করতে না চাইলে মাশকারা অথবা আইলাইনার ব্যবহার করতে পারেন। দিনের সাজে মাশকারা ঘন আর আইলাইনার হালকা হতে হবে।

* লিপস্টিক হতে হবে ঠোঁটের রঙের তুলনায় এক শেড গাঢ়। এ জন্য ম্যাট লিপস্টিক বেছে নিতে পারেন। সকাল বা দুপরের দিকে লিপগ্লস ব্যবহার করবেন না। সন্ধ্যার সাজে ভেজা ঠোঁট বেশি মানায়।

* দিনে ফাউন্ডেশন ব্যবহার এড়িয়ে চলুন। ব্লাসনের ক্ষেত্রে হালকা গোলাপি ছাড়া অন্য রং ব্যবহার না করাই ভালো।

* গহনা ভারী হলে চেহারায় উৎসবের আমেজ বেশি বোঝা যায়। আজকাল স্বর্ণের পরিবর্তে রুপা, মুক্তা বা পাথরের গহনার কদর বেশি দেখা যায়।

* ঈদের দিন সুন্দর মেকআপ পেতে বাসায় কয়েকদিন প্র্যাকটিস করতে পারেন। এতে সাজ নিখুঁত হয়।

* লিপস্টিক লাগানোর আগে ঠোঁটে ফাউন্ডেশন ও ফেস পাউডার লাগিয়ে মুছে নিন। এরপর লিপস্টিক লাগান। এতে লিপস্টিকটা দীর্ঘসময় স্থায়ী হবে।

* ত্বকের দাগ দূর করতে কমপক্ষে ঈদের এক সপ্তাহ আগে অরেঞ্জ ফেসিয়াল নিতে পারেন।

* চুলে রিবন্ডিং করাতে চাইলে কমপক্ষে ঈদের ১০ দিন আগে করানো উচিত। কারণ রিবন্ডিং করার পর পাঁচদিন শ্যাম্পু করা যাবে না। তাছাড়া নিজের সঙ্গে মানিয়ে নিতে একটু সময় দিতেই হয়।

* ঈদের আগে মুখে ইনস্ট্যান্ট চাকচিক্য আনতে ময়দা, দুধ আর লেবু প্যাকের বিকল্প নেই। এ জন্য দুধ ও লেবুর রসে অল্প পরিমাণ ময়দা মুখে লাগিয়ে কিছুক্ষণ পর ধুয়ে ফেলুন।

* মেকআপের মাধ্যমে চোখ বড় করতে চাইলে চোখের নিচের পাতায় রিমে সাদা পেনসিলের টান দিয়ে চোখ বড় দেখানো যায়।

* মেকআপ করার আগে মুখে অবশ্যই বরফ ঘষে নিন। এতে করে মেকআপটা ভালো করে মুখে বসবে।

* ঈদের আগের হেয়ার ট্রিটমেন্ট, ফেয়ার পলিশ, স্কিন পলিশ করাতে চাইলে অবশ্যই ১০ দিন আগে থেকে করাতে হবে।

* দিনশেষে চোখের কাজল, মেকআপ তুলতে তুলা বা টিস্যুতে লোশন বা অলিভ অয়েল লাগিয়ে নিন। এবার তা দিয়ে আলতো করে ঘষে মুখ পরিষ্কার করুন।
/এইচ.

সংবাদ পড়ুন, লাইক দিন এবং শেয়ার করুন

Comments

comments

About গণমানুষের আওয়াজ.কম

x

Check Also

সংসদ নির্বাচন বানচালের ষড়যন্ত্র সফল হবে না: প্রধানমন্ত্রী

আওয়াজ অনলাইন : আসন্ন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন বানচালের যড়যন্ত্র সফল হবে না বলে মন্তব্য ...

error: Content is protected !!