Home » সংবাদ শিরোনাম » আবাসিক মেডিকেল অফিসার সুমনুল হকের ভুল অপারেশন মৃত্যু মুখী পঞ্চসোনা গ্রামের রাশিদা
আবাসিক মেডিকেল অফিসার সুমনুল হকের ভুল অপারেশন মৃত্যু মুখী পঞ্চসোনা গ্রামের রাশিদা

আবাসিক মেডিকেল অফিসার সুমনুল হকের ভুল অপারেশন মৃত্যু মুখী পঞ্চসোনা গ্রামের রাশিদা

হুমায়ুন কবির সুমন, সিরাজগঞ্জ প্রতিনিধি : ভুল চিকিৎসার অভিযোগ উঠেছে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার কড্ডা মোড় ১০ শয্যা হাসপাতালের সার্জারী চিকিৎসক ও কামারখন্দ ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পপ্লেক্স এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. এমএম সুমনুল হক (সজীব)‘র বিরুদ্ধে। কামারখন্দ ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পপ্লেক্স এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. এমএম সুমনুল হকের ভুল অপারেশনে সদর উপজেলার সয়দাবাদ ইউনিয়নের পঞ্চসোনা গ্রামের মো: মনিরুল ইসলামের স্ত্রী মোছা: রাশিদা বেগম (৩০) মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন।

গত ৫ আক্টোবর অপারেশন করাতে এসে রোগীর নারী (জড়য়ায়ু) একটি অংশ কেটে ফেলেছে বলে অভিযোগ করেছেন রোগীর স্বজনরা।
অসুস্থ্য মোছা: রাশিদা বেগমের স্বামী মো: মনিরুল ইসলাম জানান, গত ৫ আক্টোবর সকালে গর্ভকালীন ব্যাথা অনুভব করলে স্ত্রীকে নিয়ে জরুলী ভাবে কড্ডার মোড় ল্যাব এইচ হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টি কে নিয়ে যায় সেখানে ল্যাব এইচ হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টি ১০ শয্যা হাসপাতালের সার্জন ও কামারখন্দ ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পপ্লেক্স এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. এমএম সুমনুল হক (সজীব) তার পরিক্ষা নিরিক্ষা করেন। ডা. সজীব তার স্ত্রীকে দেখে জরুরী অপারেশন করার কথা বলেন এবং ঐ ল্যাব এইচ হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিকে ভর্তি করাতে বলেন।

ডাক্তারের পরামর্শ মতো রোগীকে ল্যাব এইচ হাসপাতাল এন্ড ডায়াগনষ্টিকে ভর্তি করান এবং সেখানে ডা. এমএম সুমনুল হক (সজীব) দুপুর ৩টায় তার স্ত্রীর সিজার অপারেশন করেন সে সময় তার সাথে এনেসথিশিয়া (অজ্ঞানের ডাক্তার) ডা: শাওন আহম্মেদ শুভ তার সাথে উপস্থিত ছিলেন। কিন্তু অপারেশনের পর থেকে রোগীর অবস্থা খারাপ হতে শুরু করে। এবং তখন হাসপাতালে তাকে ৩ব্যাগ রক্ত দেওয়া হয় রক্ত দেওয়ার পরেও রোগীর অবনতি ঘটলে তখন ডাক্তার দ্রুত রোগীকে ঢাকা বা বগুড়ায় নিয়ে যেতে বলেন।

তিনি আরও জানান, মূমূর্ষ অবস্থায় সেসময় তার স্ত্রীকে বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয় সেখানকার ডাক্তাররা তাকে আইসিইউতে নিয়ে যান। সেখানে তাকে ৬ ব্যাগ রক্ত দেওয়া হয়। কিন্তু সেখানকার চিকিৎসকরা জানিয়েছেন অপারেশনের ফলে মোছা: রাশিদা বেগম নারী কেটেগেছে এছাড়াও তার অতিরিক্ত রক্ত খড়নের কারণে রোগীর অবস্থা খুব আশংকা জনক। ওনাকে বাঁচানোর মালিক আল­াহ্ তবে আমরা সর্বাত্বক চেষ্টা চালিয়েছি।
তার পরে বগুড়া শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে ৫দিন থাকার পরে ডাক্তার তাকে ফিরিয়েদেয়। তখন অসহায় হয়ে তাকে ঢাকার হলী ফ্যামিলীতে দুইদিন, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পরে ঢাকার লাল মাটিয়ার রয়েল হাসপাতালে ও সবশেষ মিরপুরের ডেল্টা মেডিকেল হাসপাতালে ঘুরেও ডাক্তারগণ তাকে ফেরত দিয়েছেন। বর্তমানে মোছা: রাশিদা বেগম নিজ বাড়ী সয়দাবাদ ইউনিয়নের পঞ্চসোনা গ্রামে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছেন।

কামারখন্দ ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পপ্লেক্স এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. এমএম সুমনুল হক (সজীব) কে তার কর্মস্থলে গিয়ে পাওয়া যায়নি কিন্তু মুঠোফোনে প্রশ্নকরা হলে উত্তরে বলেন, আমার অপারেশনের সময় হঠাৎ করে এই দূরঘটনাটি ঘোটেছে এখন কিছুই করার নাই। পরে আমি অন্যত চিকিৎসার জন্য বগুড়া বা ঢাকায় নিয়ে যেতে বলেছি। কামারখন্দ ৫০ শয্যা বিশিষ্ট উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পপ্লেক্স এর আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) হয়ে বেসরকারী ক্লিনিকে অপারেশন করার কারন জানতে চাইলে ডা. এমএম সুমনুল হক (সজীব) বলেন, আমি বেসরকারী ক্লিনিকে অপারেশন করাতে পারি। রোগীর অবস্থা এমন ছিলো যে তাকে জরুরী অপারেশন করানোর প্রয়োজন ছিল।

এবিষয়ে কামারখন্দ স্বাস্থ্য ও উপজেলা প:প: কর্মকর্তা ডা: মো: ফারুক আহমেদ বলেন, এবিষয়ে আমার জানানেই তবে ডা. এমএম সুমনুল হক (সজীব) এলে তার কাছ থেকে জানতে হবে।এবিষয়ে সিরাজগঞ্জ সিভিল সার্জন বলেন, আমি এবিষয়টি শুনেছি রোগীকে বাড়ীতে না রেখে সদর হাপিটাল ভর্তি করলে মনে হয় ভালো হতো। এর পরে আমারা প্রয়োজীনিয় ব্যবস্থা নিবো।

লাইক ও শেয়ার করুন:
BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes
Scroll Up
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error: Content is protected !!