Home » অপরাধ-দুর্নীতি » সোনারগাঁয়ে দপ্তরী ধর্ষণ করলো ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী থানায় মামলা
সোনারগাঁয়ে দপ্তরী ধর্ষণ করলো ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী থানায় মামলা

সোনারগাঁয়ে দপ্তরী ধর্ষণ করলো ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী থানায় মামলা

সোনারগাঁ (নারায়ণগঞ্জ) প্রতিনিধি:
নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ের মোগরাপাড়া ইউনিয়নের সোনাখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর এক ছাত্রীকে ওই স্কুলের দপ্তরী মনির হোসেন ধষর্ণ করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। বুধবার সকালে স্কুলের একটি কক্ষে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে। ঘটনার পর ওই ছাত্রী অসুস্থ্য হয়ে পড়লে গতকাল শনিবার সকালে এ ঘটনা প্রকাশ পায়। ঘটনা প্রকাশের পর অভিযুক্ত দপ্তরী মনির হোসেন বাড়ি ছেড়ে পালিয়ে যায়। বিষয়টি ধামাচাপা দিতে স্থানীয় লোকজন বিভিন্ন চেষ্টা তদবির করছে বলে জানা যায়। এ ঘটনায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে সন্ধ্যায় সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়ের করেছেন।
সোনারগাঁ থানায় মামলা থেকে জানা যায়, উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের সোনাখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ৫ম শ্রেণীর ছাত্রী বুধবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে স্কুলে যায়। এসময় ওই স্কুলে কোন শিক্ষার্থী বা শিক্ষক উপস্থিত হয়নি। এ সুযোগে ওই স্কুলের দপ্তরী ও একই গ্রামের সিরাজুল ইসলামের ছেলে মনির হোসেন ওই ছাত্রীকে কৌশলে স্কুলের একটি কক্ষে ডেকে নিয়ে ওই ছাত্রীকে ধর্ষণ করে মনির হোসেন। এসময় ওই ছাত্রী অসুস্থ্য হয়ে পড়লে স্কুল থেকে চলে যায়। গতকাল শনিবার সকালে ওই ঘটনাটি তার চাচির কাছে প্রকাশ করে ওই ছাত্রী। পরে ওই ছাত্রীকে একটি হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। ঘটনা প্রকাশের পর গতকাল শনিবার সন্ধ্যায় ওই ছাত্রীর মা বাদী হয়ে সোনারগাঁ থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন মামলা নং ১৫/০৯/১৯।
ধর্ষিতা ছাত্রী জানায়, বুধবার সকালে আমি স্কুলে যাই। ওই সময়ে কেউ স্কুলে আসেনি। আমাকে দপ্তরী মনির হোসেন স্কুলের একটি কক্ষে নিয়ে জোরপূর্বক মুখ চেপে ধরে ধর্ষণ করে। এবং সে এর আগে আমাকে আমি একাধিকবার ধর্ষণ করেছে। আমি অসুস্থ্য হলে আমি ঘটনাটি চাচিকে বলি। দপ্তরী আমাকে এ ঘটনা জানাতে বারণ করেছে। আমি জানালে ক্ষতি হবে বলে হুমকি দিয়েছে।
সোনাখালী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক রোকেয়া বেগম বলেন, ঘটনাটি ওই ছাত্রীর অভিভাবকরা এসে দপ্তরী মনির হোসেনের বিরুদ্ধে আমাদের জানিয়েছেন। ঘটনাটি উপজেলা শিক্ষা অফিসারকে মোবাইলে জানিয়েছি।
সোনারগাঁ থানার ওসি মনিরুজ্জামান বলেন, স্কুল ছাত্রী ধর্ষণের ঘটনায় মামলা গ্রহন করা হয়েছে। ধর্ষণকারী দপ্তরীকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

লাইক ও শেয়ার করুন:
BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes
Scroll Up
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error: Content is protected !!