Oops! It appears that you have disabled your Javascript. In order for you to see this page as it is meant to appear, we ask that you please re-enable your Javascript!
Home » বিনোদন » সা রে গা মা পা: প্রথম হয়েছেন অঙ্কিতা ‘বিস্ময় বালক’ নোবেল তৃতীয়!
সা রে গা মা পা: প্রথম হয়েছেন অঙ্কিতা ‘বিস্ময় বালক’ নোবেল তৃতীয়!

সা রে গা মা পা: প্রথম হয়েছেন অঙ্কিতা ‘বিস্ময় বালক’ নোবেল তৃতীয়!

আওয়াজ অনলাইন : ভারতীয় টেলিভিশন চ্যানেল জি বাংলার গান বিষয়ক রিয়েলিটি শো ‌‌‘সা রে গা মা পা’র মাধ্যমে বিস্ময় বালক হিসেবে আখ্যায়িত হন বাংলাদেশের ছেলে মাঈনুল আহসান নোবেল। এই বিশেষণটি বেশিরভাগ সময়ই এসেছে আয়োজনের বিচারকদের তরফ থেকে। গত ২৯ জুন ‘সা রে গা মা পা’-এর এবারের আসরের গ্র্যান্ড ফাইনালের পর্ব ধারণ করা হয়েছে। যা জি বাংলায় প্রচার হয় আজ ২৮ জুলাই।

তে প্রথম হয়েছেন অঙ্কিতা। যৌথভাবে প্রথম রানারআপ গৌরব ও স্নিগ্ধজিত্ এবং দ্বিতীয় রানারআপ হয়েছেন প্রীতম ও মাঈনুল আহসান নোবেল!বিচারকদের রায়ে এই ফল হলেও দর্শক ভোটে সেরা নোবেল। তিনি ‘মোস্ট ভিউয়ার চয়েস’-এ বিজয়ী হয়েছেন।

এদিকে শনিবার কলকাতার বিশ্ব বাংলা কনভেনশন সেন্টারে চূড়ান্ত পর্বের দৃশ্যধারণ সম্পন্ন হয়। বিজয়ীদের হাতে পুরস্কার তুলে দেওয়া হয় তখন। সেখানে দেখা যায়, প্রথম পুরস্কার বিজয়ী অঙ্কিতার হাতে তুলে দেওয়া হচ্ছে গাড়ির চাবি। পুরস্কার হাতে পাশে দাঁড়িয়েছে আছেন প্রথম রানারআপের দুইজন। তাদের সবার পেছনে অবস্থান করছেন নোবেল।

রিয়্যালিটি শো ‘সা রে গা মা পা’র চূড়ান্ত আসরে বাংলাদেশের ‘বিস্ময় বালক’ নোবেল তৃতীয় হয়েছেন! বিশাল বিস্ময় নিয়ে বাংলাদেশের গান প্রেমিকরা বেশ আহতই হয়েছেন এমন ফলাফলে।

এ প্রতিযোগিতার মধ্যমেই বাংলাদেশের মাঈনুল আহসান নোবেল ভারত ও নিজ দেশে বেশ জনপ্রিয়তা লাভ করেন। তাঁকে বিস্ময় বালকও বলা হয়। এ বিশেষণটি খোদ বিচারকরাই তাঁকে দিয়েছেন। তবে তাঁদের উচ্ছ্বাস এবং দর্শকের ভোটে এগিয়ে থাকলেও গানের প্রতিযোগিতায় শেষ পর্যন্ত প্রথম হতে পারেননি এই তারকা।

গত রোববার স্থানীয় সময় রাত সাড়ে ১১টায় (বাংলাদেশ সময় রাত ১১টায়) প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্বের ফলাফল ঘোষণা করা হয়। এর আগে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় শুরু হয় অনুষ্ঠানটি। সা রে গা মা পা-এর এবারের চূড়ান্ত পর্যায়ে যাঁরা নির্বাচিত ছিলেন সুমন মজুমদার, অঙ্কিতা ভট্টাচার্য, গৌরব সরকার, নোবেল, স্নিগ্ধজিত্ ভৌমিক, প্রীতম রায়।

অঙ্কিতাই চ্যাম্পিয়ন হলেন চূড়ান্ত আসরে। তৃতীয় হয়েছেন বাংলাদেশের মাঈনুল আহসান নোবেল। তিনি প্রীতমের সঙ্গে যৌথভাবে দ্বিতীয় রানারআপ অর্থাত্ তৃতীয় হয়েছেন। কালিকা প্রসাদ স্মৃতি পুরস্কার পেয়েছেন সুমন মজুমদার। বিজয়ী অঙ্কিতা পুরস্কার হিসেবে পেয়েছেন ২ লাখ রুপি ও একটি নতুন গাড়ি।

জানা যায়, গেল বছরের সেপ্টেম্বরে জি বাংলায় শুরু হয় ‘সা রে গা মা পা ২০১৮-১৯’ প্রতিযোগিতা। ভারত থেকে নির্বাচিত ৪৮ জন প্রতিযোগী অংশ নেন। প্রতিযোগিতায় বাংলাদেশ থেকে অংশ নেন ৮ প্রতিযোগী (অবন্তি সিঁথি, তানজীম শরীফ, রোমানা ইতি, মেজবা বাপ্পী, আতিয়া আনিসা, মন্টি সিনহা ও মাঈনুল আহসান নোবেল)।

নোবেল ছাড়া অন্যরা বিভিন্ন পর্যায়ে বাদ পড়লেও নোবেল আসেন চূড়ান্ত পর্বে। সম্পূর্ণ এ আয়োজনটিতে বিচারকের দায়িত্বে ছিলেন শ্রীকান্ত আচার্য, শান্তনু মৈত্র ও মোনালি ঠাকুর।

প্রতিযোগীতার চূড়ান্ত পর্বে নোবেল গেয়েছেন প্রিন্স মাহমুদের লেখা ও সুর করা আর জেমসের কণ্ঠে জনপ্রিয় হওয়া ‘বাংলাদেশ’ গানটি। এর আগে অনুষ্ঠানের শুরুতে তিনি আরও গেয়েছেন আইয়ুব বাচ্চুর ‘সেই তুমি’ এবং প্রতুল মুখোপাধ্যায়ের ‘আমি বাংলায় গান গাই’ গান দুটি।

উল্লেখ্য, গোপালগঞ্জের ছেলে মাঈনুল আহসান নোবেল বড় হয়েছেন বিভিন্ন জায়গায়। লেখাপড়া করেছেন বাংলাদেশ ও ভারতে। মাথায় গানের পোকা ঢোকে কলকাতায়। মাত্র ৬০০ টাকায় পুরোনো সিগনেচার ব্যান্ডের গিটার কিনে তা দিয়েই শুরু করেন সংগীতচর্চা। কলকাতায় মাধ্যমিক পর্যায়ের প্রাতিষ্ঠানিক পড়াশোনা শেষ করে ২০১৪ সালে ঢাকায় ফেরেন নোবেল।
/এইচ.

লাইক ও শেয়ার করুন:
BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes
Scroll Up
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
FACEBOOK
FACEBOOK
TWITTER
error: Content is protected !!