Home » আইন-আদালত » ভোলায় মাথাকাটা গুজব ছড়ালেই গ্রেপ্তার এসপি- কায়সার
ভোলায় মাথাকাটা গুজব ছড়ালেই গ্রেপ্তার এসপি- কায়সার

ভোলায় মাথাকাটা গুজব ছড়ালেই গ্রেপ্তার এসপি- কায়সার

ভোলা প্রতিনিধি: সারাদেশেই চলছে মাথাকাটা বা ছেলেধরা নামে গুজব ৷ জনমনে সৃষ্টি হয়েছে আতঙ্ক ৷ এমন  অস্তিত্ব বিহীন গুজবের প্রেক্ষিতে ভোলায় মাথাকাটা ছেলেধরা গুজব ছড়ালেই গ্রেপ্তারের নির্দেশ দিয়েছে জেলা এসপি সরকার মোহাম্মদ কায়সার। পাশাপাশি জনগণকে স্বাভাবিক ভাবে চলাফেরার নির্দেশ প্রদান করেন ৷

বৃহস্পতিবার দুপুরে এ সম্পর্কিত এক প্রেস ব্রিফিংয়ে তিনি এ নির্দেষ দেন ৷ এসময় তিনি বলেন, পদ্মা সেতু নির্মাণ কাজে প্রায় ১ লক্ষ লোকের মাথা লাগবে এমন গুজব ছড়িয়ে একটি শ্রেণি সরকারের উন্নয়ন কাজকে ষড়যন্ত্র করে বাধাগ্রস্ত করার চেষ্টা করছিলো। এই গুজবের কারণে বাচ্চারা স্কুলে যাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। তার পর বিষয়টির মূলরহস্য উদঘাটন করার চেষ্টা করছে পুলিশ। তিনি আরো জানান, ১০ জুলাই বিকেলের দিকে চরফ্যাশন উপজেলার মাদ্রাস থেকে অভিযান চালিয়ে গুজব ছড়ানোর অভিযোগে আঃ সহিদ হাওলাদার (২৪) নামের এক যুবককে আটক করা হয়।

আটককৃত যুবক মাদ্রাজ ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের মোঃ আলী হাওলাদারের ছেলে ৷ এই গুজবের সাথে আরো তিন জন জড়িত রয়েছে৷ এর মধ্যে ১ জন বিদেশে অবস্থান করছেন আরো ২ জন পুলিশের অনুন্ধান টের পেয়ে জেলার বাহিরে চলে গেছেন তাদেরকেও গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

আটককৃত আঃ সহিদ তিনি তার মোবাইল দ্বারা ফেসবুক,  মেসেঞ্জার ও যোগাযোগ মাধ্যমে বিভিন্ন স্থানে মানুষের মাঝে গুজব ছড়িয়ে আতঙ্ক সৃষ্টি করে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটানোর প্রয়াস চালানা। এঘটনায় ডিজিটাল নিরাপত্তা ২০১৮ আইনে তিন জনকে বিবাদী করে চরফ্যাশন থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছ। যার মামলা নং ৫। বৃস্পতিবার তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

এসময় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাফিন আহম্মেদ, রাসেল উর রহমন, সহকারি পুলিশ সুপার মীর সাব্বিরসহ পুলিশের বিভিন্ন কর্মকর্তা উপস্থিত ছিলেন।

লাইক ও শেয়ার করুন:
BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes
Scroll Up
Social media & sharing icons powered by UltimatelySocial
error: Content is protected !!