সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি: সুনামগঞ্জ জেলার জগন্নাথপুর উপজেলায় নতুন করে আরেক ব্যক্তি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে জগন্নাথপুরে ১০ জন করোনায় আক্রান্ত হলেন। তার মধ্যে ৬ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরছেন এবং একজন সিলেট শহীদ সামসুউদ্দিন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন আরেকজন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স আইসোলেশন সেন্টারে রয়েছেন। নতুন আক্রান্ত ২ ব্যক্তিকে হোম আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্রে জানা যায়, ১জুন সিলেট শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের পিসিআর ল্যাব থেকে প্রকাশিত কোভিড-১৯ পরীক্ষার রিপোর্টে জগন্নাথপুর পৌরসভার বাসিন্দা এক ব্যাক্তির পজিটিভ সনাক্ত হয়েছে।

গত ৩০ মে আক্রান্ত ব্যক্তির জগন্নাথপুর উপজেলা হাসপাতালে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। ২ জুন মঙ্গলবার উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের একটি মেডিকেল টিম প্রাথমিক পরীক্ষা শেষে আক্রান্ত ব্যক্তিকে হোম আইসোলেশন রাখেন এবং চিকিৎসা সহ পরবর্তী স্বাস্থ্যবার্তা প্রদান করেন। এছাড়াও আক্রান্ত ব্যক্তির পরিবারের সবাইকে শতভাগ হোম কোয়ারান্টাইনে থাকা নিশ্চিত সহ আশেপাশের তিনটি বাড়িকে সরকার নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে সর্বোচ্চ সতর্ক অবস্থা অবলম্বন করার জন্য কঠোর নির্দেশনা লকডাউন ঘোষণা করা হয়।

এ সময় পৌরসভার ওয়ার্ড কাউন্সিলর মো. দেলোয়ার হোসেন, স্বাস্থ্য বিভাগের স্বাস্থ্য পরিদর্শক বাবু বীরেন্দ্র কুমার দেব,সহকারী স্বাস্থ্য পরিদর্শক রুমী রায় ,স্বাস্থ্য সহকারী সুমন্ত দেবনাথ সহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা.মধু সুধন ধর বলেন, জগন্নাথপুর উপজেলায় এখন পর্যন্ত সর্বমোট ১০ জন ব্যক্তি ‘কোভিড-১৯’ পজিটিভ হয়েছেন। এর মধ্যে ছয়জন পূর্ণ সুস্থ হয়ে স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরেছেন,একজন সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমেদ হাসপাতালে, একজন জগন্নাথপুর হাসপাতালে প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশনে এবং দুইজন নিজেদের বাড়িতে হোম আইসোলেশনে থেকে চিকিৎসাধীন আছেন।

তিনি আরো বলেন, আপনারা দেখতে পাচ্ছেন বর্তমানে সারা বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা যেমন বৃদ্ধি পাচ্ছে তেমনি মৃত্যুর সংখ্যাও আশংকাজনক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। জগন্নাথপুরেও প্রায় প্রতিদিন নতুন করে আক্রান্ত হচ্ছেন। তাই দয়া করে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া অযথা বাইরে ঘুরাঘুরি করবেন না, বাইরে গেলে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করুন,বার বার সাবান পানি বা হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিস্কার করুন। হালকা কুসুম গরম পানি বেশি করে পান করার পাশাপাশি ভিটামিন সি ও জিংক সমৃদ্ধ খাবার,সবুজ শাকসবজি খাবার তালিকায় রাখুন। প্রতিদিন হালকা রোদে ৩০ মিনিট ব্যায়াম করুন এবং ধুমপান ও তামাক জাতীয় দ্রব্য সেবন করা থেকে বিরত থাকুন।#