Home » সংবাদ শিরোনাম » মাদকসেবী গ্রেফতার, স্ত্রীকে ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়ের অভিযোগ
মাদকসেবী গ্রেফতার, স্ত্রীকে ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়ের অভিযোগ

মাদকসেবী গ্রেফতার, স্ত্রীকে ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়ের অভিযোগ

এম আর ওয়াসিম, ভৈরব(কিশোরগঞ্জ) প্রতিনিধি : কিশোরগঞ্জের ভৈরবের কালিকাপ্রসাদ ইউনিয়নের দক্ষিণ পাড়া থেকে দ্বীন ইসলাম নামে তালিকা ভুক্ত এক মাদকসেবী  কে ২শ গ্রাম গাঁজাসহ গ্রেফতার করা হয়। গতকাল শুক্রবার বিকাল ৩ ঘটিকায় দ্বীন ইসলামের নিজ বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে ভৈরব মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান ও সংগীয় ফোর্স। এসময় দ্বীন ইসলামের স্ত্রী সহিদা বেগমকে গ্রেফতারের ভয় দেখিয়ে ১০ হাজার টাকা আদায় করে নিয়ে আসে বলে অভিযোগ পাওয়া যায় ঐ কর্মকর্তার বিরুদ্ধে।

দ্বীন ইসলামের স্ত্রী সহিদা বেগম অভিযোগে জানায় আইনের লোক এসে প্রথমে আমার স্বামীকে গ্রেফতার করে। পড়ে সমস্ত ঘর তল্লাশী করে কিছু পায়নি তারা। আমার স্বামীর কোমর থেকে এক পুটলা গাঁজা পায়। আমার জানা মতে আমার স্বামী মাঝে মধ্যে গাজা সেবন করে। কিন্তু আইনের লোক আমার স্বামীর সাথে আমাকেও গ্রেফতার করে নিয়ে যাবে বলে হুমকি দিয়ে ২০ হাজার দাবী করে। আমি আমার ছোট ছোট পাঁচ সন্তানের কথা চিন্তা করে দিয়েহারা হয়ে অন্য কোন উপায় না পেয়ে গত সপ্তাহে আমার গরু বিক্রির টাকা থেকে  ১০ হাজার টাকা দিয়ে দিই। এই টাকার কথা কাউকে না বলার বলার জন্যও হুমকি দেয় তারা।

এদিকে দ্বীন ইসলাম জানায় আমি মাঝে মাঝে গাঁজা সেবন করি কিন্তু আমি ব্যবসায়ী না। মাদকদ্রব্যে অফিসের লোকজন আমার স্ত্রীকে ভয় দেখিয়ে ১০ হাজার টাকা হাতিয়ে নেয় এবং কাউকে এই টাকার কথা না বলার জন্য হুমকি দেয়। বিষয়টি স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের মেম্বারের মাধ্যমে জেনে এক সাংবাদিক ফোন করলে ঐ সাংবাদিক নিয়েও বিরুপ মন্তব্য করেন মাদকদ্রব্য  অফিসার। আমাকে কর্কশ ভাষায় জিজ্ঞাসা করে যে সাংবাদিক ফোন দিলো কেন? সাংবাদিক মাসোয়ারা খায় কিনা? সাংবাদিকের ছত্রছায়ায় তুই ব্যবসা করছ কিনা, ইত্যাদি। আমি গত সপ্তাহে বাড়ির পাশের সাত্তার মিয়ার নিকট একটা গাভী বিক্রি করি।  সোর্স ও মাদক ব্যবসায়ী এমাদ মিয়া ঐ টাকাটা হাতিয়ে নিতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে আমাকে ধরিয়ে দিয়েছে।

এবিষয়ে ভৈরব মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা জনাব মাসুদুর রহমান জানান বিশেষ অভিযানে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দ্বীন ইসলামের বাড়িতে তল্লাশী করে তার সাথে ২শ গ্রাম গাঁজা পায় এবং তার বিরুদ্ধে ভৈরব থানায় মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দেয়। দ্বীন ইসলামের স্ত্রী সহিদা বেগমের টাকার বিষয়ে তিনি আরো বলেন যে, এটা মিথ্যা ও বানোয়াট। সামাজিক ভাবে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য তারা এই মিথ্যা অভিযোগ করেছে।

BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes
Scroll Up
error: Content is protected !!