Home » সংবাদ শিরোনাম » ভালুকার সেচ্ছাসেবীদের ব্রহ্মপুত্র ব্লাড কল্যান সোসাইটির সন্মাননা স্মারক ক্রেস্ট প্রদান
ভালুকার সেচ্ছাসেবীদের ব্রহ্মপুত্র ব্লাড কল্যান সোসাইটির সন্মাননা স্মারক ক্রেস্ট প্রদান

ভালুকার সেচ্ছাসেবীদের ব্রহ্মপুত্র ব্লাড কল্যান সোসাইটির সন্মাননা স্মারক ক্রেস্ট প্রদান

আরিফুল ইসলাম আরিফ,(ময়মনসিংহ)ভালুকা, প্রতিনিধি: ভালুকার সেচ্ছাসেবীদের মানবতার সেবায় সেরা রক্তদানে ব্রহ্মপুত্র,ব্লাড কল্যান সোসাইটির পক্ষ থেকে সন্মাননা স্মারক ক্রেস্টে ভূষিত।স্বেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠান ব্রহ্মপুত্র ব্লাড কল্যান সোসাইটির তৃতীয় বর্ষপূর্তিতে সন্মাননা প্রদান অনুষ্ঠানে,মমিনুর রহমান প্লাবনের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসাবে ময়মনসিংহ সিটি করপোরেশনের মেয়র, ইকরামুল হক টিটুসহ অতিথিদের হাত থেকে সেরা রক্তদানে অবদানের জন্য সন্মাননা স্মারক ক্রেস্ট প্রদান করা হয়।ভালুকার তারুন্যের প্রতিক শামসুর রহমান,আসাদুজ্জামান সুমন,মামুন সরকার,আল আমিন সহ আরো অনেকে রক্তদান করে সেরা পুরুষ্কার লাভ করেন।

 

সেচ্ছাসেবী সংগঠন অভ্যুদয়ের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য ও বর্তমান সহ সম্পাদক,আল আমিন,পিতাঃ আব্দুল কাদির,মাতাঃ মৃত মালেখা খাতুন,হবিরবাড়ী,তিনি বর্তমানে ৩৭বার রক্তদানে সেরা হন।আল আমিন জানান, আমি মানুষের সেবায় রক্ত দান ও কল্যানে কাজ করে আসছি দীর্ঘ দিন যাবত।আমি যখন ছোট তখন আমার মা ব্লাড ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়।তখন আমার মাকে বাঁচানোর জন্য বড় ভাই রক্ত দিত,তখন ডাক্তার কে বলি আমিও রক্ত দিতে চাই,তখন ডাক্তার বলে তুমার আঠার বছর হলে তখন দিতে পারবে।

সেই থেকে উদ্বদ্ধু হয়ে থেকে আমি নিজে রক্ত দিচ্ছি এবং অন্যকে রক্ত দানে উৎসাহিত করে মানুষের জীবন বাঁচানোর জন্য মানবতার সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছি।তিনি জানান,আমি ১৬ কিলোমিটার হেটেও রক্ত দিয়েছি।আমাদের এই প্রচেষ্টা যদি প্রতিটি গ্রাম দেশের মানুষেরা উৎসাহিত হত,তাহলে অসুস্থ্য মানুষের জীবন বাঁচানো আরো সহজ হত।রক্তের প্রয়োজনে মানুষের কষ্ট করতে হত না।অনেকে জানান,রক্তদানের মত মহৎ একটি কাজ করায় তাদেরকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও অভিনন্দন ও আল্লাহ যেন তাদেরকে আমৃত্যু এমন মহৎ কাজ করার মত তৌফিক দেন।

BIGTheme.net • Free Website Templates - Downlaod Full Themes
Scroll Up
error: Content is protected !!